Latest News

১৯ লাখ ভারতীয়ের হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্ট নিষিদ্ধ হয়েছে এক মাসে, অভিযোগ ভুরি ভুরি

দ্য ওয়াল ব্যুরো: নিয়মনীতির বিরুদ্ধে যাওয়া চলবে না। পই পই করে বলেছিল হোয়াটসঅ্যাপ (Whatsapp)। অ্যাকাউন্ট সুরক্ষিত রাখার উপায়ও বাতলে দিয়েছিল। কিন্তু তা হয়নি। তাই বাধ্য হয়েই এক মাসের মধ্য়ে ১৯ লাখ ভারতীয়ের হোয়াটসঅ্য়াপ অ্য়াকাউন্ট নিষিদ্ধ করে দেওয়া হয়েছে। সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে, নতুন তথ্যপ্রযুক্তি আইন বলবৎ করার কারণেই ওই অ্যাকাউন্টগুলি বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

মে মাসের মধ্য়ে প্রায় ১৯ লাখ অ্য়াকাউন্ট ব্যান হয়েছে বলে জানিয়েছে বিশ্বের সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত মেসেজিং প্ল্যাটফর্ম হোয়াটসঅ্য়াপ। নিয়ম বিরুদ্ধ কাজের জন্যই অ্য়াকাউন্টগুলো বন্ধ করা হয়েছে বলে দাবি করেছেন হোয়াটসঅ্যাপের এক মুখপাত্র। তিনি জানান, নেটমাধ্যমে ঘটে চলা বিভিন্ন ধরনের নিগ্রহের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিচ্ছে হোয়াটসঅ্যাপ। হোয়াটসঅ্যাপকে সুরক্ষিত রাখতে দীর্ঘদিন ধরেই মেসেজিং প্ল্যাটফর্মে এই ধরনের নিয়ম বিরুদ্ধ কাজকর্ম বন্ধ করার প্রচেষ্টা চলছে। অশ্লীল মেসেজ, রাজনৈতিক বা সাম্প্রদায়িক উস্কানিমূলক মেসেজ, ভুয়ো খবর, দেশবিরোধী মেসেজ বা ভিডিও চালাচালির ক্ষেত্রে কড়া নিয়ম জারি করেছিল হোয়াটসঅ্যাপ। এর অন্যথা হলেই অ্যাকাউন্ট ব্লক করে দেওয়া হবে হুঁশিয়ারিও দেওয়া হয়েছিল।

সংস্থার তরফে জানানো হয়েছে, শুধু নিগ্রহ নয়, ভুল ও মিথ্যে খবর প্রচার করা, অসমর্থিত সূত্র থেকে আসা কোনও বার্তা বা ছবি একাধিক মানুষকে পাঠানোক জন্যেও ব্যান করা হতে পারে হোয়াটসঅ্যাপ অ্যাকাউন্ট। বিশেষ করে যে ধরনের বার্তাগুলি অসংখ্যবার ফরোয়ার্ড করা হয়েছে, এবং যে মেসেজগুলির জন্য গণরোষ তৈরি হয়েছে, সেইসব অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দেওয়ারই সিদ্ধান্ত নিয়েছে হোয়াটসঅ্যাপ।

You might also like