Latest News

ইতিহাস দিল্লি হাইকোর্টে, সুপ্রিম সুপারিশে বিচারপতি হতে পারেন সমকামী আইনজীবী

দ্য ওয়াল ব্যুরো: লিঙ্গ বৈষম্য ঘুচছে দেশে। নজির তৈরি হতে চলেছে দিল্লি হাইকোর্টে।

সুপ্রিম কোর্টের সুপারিশে এই প্রথমবার কোনও সমকামী আইনজীবী (Gay Advocate) হাইকোর্টের বিচারপতির আসনে বসতে চলেছেন। সিনিয়র অ্যাডভোকেট সৌরভ কিরপালকে বিচরপতির পদে উন্নীত করার সুপারিশ করেছে শীর্ষ আদালতের প্রধান বিচারপতি এনভি রামানার নেতৃত্বাধীন বেঞ্চ। এই সুপারিশ বাস্তবায়িত হলে দেশে প্রথমবার কোনও সমকামী আইনজীবী দিল্লি হাইকোর্টের বিচারপতির পদে বসবেন।

২০১৭ সালে দিল্লি হাইকোর্টের কলেজিয়াম অভিজ্ঞ আইনজীবী সৌরভ কিরপালের নাম বিচারপতির পদের জন্য সুপারিশ করেছিল। সে সময় কলেজিয়ামের মাথা ছিলেন বিচারপতি গীতা মিত্তল। কিন্তু কলেজিয়ামের সুপারিশে সেই সময় অনুমতি দেয়নি কেন্দ্র। নানা কারণ দেখিয়ে তা খারিজ করা হয়েছিল। এরপরেও ২০১৯ সালের জানুয়ারি, এপ্রিলে ও চলতি বছর অগস্টেও আইনজীবীকে নিয়ে কলেজিয়ামের সুপারিশ স্থগিত রাখা হয়।

গত চার বছর ধরে কলেজিয়ামের সুপারিশ কেন স্থগিত রাখা হল সে ব্যাপারে কেন্দ্রের যুক্তি চেয়ে আইনজীবী রবিশঙ্কর প্রসাদকে চিঠি লিখেছিলেন সেই সময়ের প্রধান বিচারপতি এসএ বোবদে। কিন্তু এই বিষয়টি উপেক্ষিতই থেকে যায়।

দিল্লির স্টিফেন কলেজ থেকে পাশ করে সৌরভ কিরপাল। এরপর অক্সফোর্ড ও কেমব্রিজ ইউনিভার্সিটিতে আইন নিয়ে ডিগ্রি করেন। গত ২০ বছর ধরে সুপ্রিম কোর্টে প্র্যাকটিসও করছেন। ২০১৮ সালে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৭৭ ধারা খারিজ করেছিল সুপ্রিম কোর্টের পাঁচ বিচারপতির বেঞ্চ। সংবিধানের ওই ধারায় সমকামকে অপরাধের তকমা দেওয়া হয়েছিল। এই মামলার আবেদনকারীদের হয়ে লড়েছিলেন আইনজীবী সৌরভ কিরপাল।

চার বছরের লড়াই শেষে চলতি বছরে ১১ নভেম্বর কলেজিয়ামের সুপারিশ মেনে নেওয়া হয়েছে। আইনজীবী সৌরভ কিরপালকে বিচারপতি করার পরামর্শ দিয়েছে প্রধান বিচারপতির নেতৃত্বাধীন সুপ্রিম কোর্টের তিন বিচারপতির বেঞ্চ।

পড়ুন দ্য ওয়ালের সাহিত্য পত্রিকা সুখপাঠ

You might also like