Latest News

বিশ্বজুড়ে কোভিশিল্ড টিকার বিতরণ করতে পারবে ভারতের সেরাম, ছাড় দিল হু

দ্য ওয়াল ব্যুরো: সেরাম ইনস্টিটিউটের কোভিশিল্ড টিকাকেই সবচেয়ে আগে ছাড়পত্র দেয় ভারত। এবার বিশ্বের বাজারেও জরুরি ভিত্তিতে সেরামের কোভিড ভ্যাকসিন বন্টনে সম্মতি দিল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। আন্তর্জাতিক বাজারে ভ্যাকসিন বিতরণ সংক্রান্ত কোভ্যাক্স কর্মসূচীতে কোভিশিল্ড টিকাকে ছাড়পত্র দেওয়া হয়েছে। এবার বিশ্বের নানা দেশে এই ভ্যাকসিন সরবরাহ করতে পারবে সেরাম।

সেরাম কর্ণধার আদর পুনাওয়ালা আগেই বলেছিলেন, কোভিশিল্ড টিকার প্রথম পাঁচ কোটি ডোজ শুধুমাত্র ভারতের জন্যই সংরক্ষণ করা থাকবে। দেশের মানুষ আগে টিকা পাবেন, মার্চ-এপ্রিল থেকে টিকার রফতানি শুরু হবে। তবে হু-র অনুমতি পাওয়ার পর খুব তাড়াতাড়ি বিশ্বের আরও কয়েকটি দেশে টিকা পাঠানোর কাজ শুরু করবে সেরাম।

পুনাওয়ালা বলেছেন, গরিব ও পিছিয়ে পড়া দেশগুলিতে খুব কম দামেই টিকার বিতরণ করা হবে। টিকার প্রতিটি ডোজের দাম ২০০ টাকার (ভারতীয় টাকায়)বেশি রাখা হবে না। গরিব দেশগুলিতে আগে টিকার বন্টন করা হবে।

ব্রাজিল ইতিমধ্যেই সেরামের টিকা কেনার প্রস্তাব পাঠিয়েছে। খুব দ্রুত যাতে টিকার সরবরাহ হতে পারে সে জন্য প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে চিঠিও লিখেছেন ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জাইর বোলসোনারো। ভারতের টিকাকরণ প্রক্রিয়ায় কোনও বিঘ্ন না ঘটিয়েই ২০ লক্ষ টিকার ডোজের প্রস্তাব পাঠিয়েছেন প্রেসিডেন্ট বোলসোনারো। অন্যদিকে, দক্ষিণ আফ্রিকায় টিকা সরবরাহের ছাড়পত্র পেয়েছে সেরাম।

সম্প্রতিই বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ‘হু’-এর পরামর্শদাতা সংগঠন সেজ অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকা টিকার কার্যকারিতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছে। করোনার নতুন স্ট্রেন ঠেকাতে এই টিকা কতটা কার্যকরী সে নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। দক্ষিণ আফ্রিকার করোনার নতুন প্রজাতির নাম বি.১.৩৫১। করোনা ভাইরাসের এই নতুন স্ট্রেনের সংক্রমণ ছড়ানোর ক্ষমতা খুব বেশি। এতে আক্রান্ত হলে করোনা সংক্রমণের সামান্য উপসর্গই দেখা যায়। সেজ জানিয়েছে, অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার এই টিকা নিলে তা ভাইরাসের এই নয়া প্রজাতির আক্রমণ থেকে টিকাগ্রহণকারীকে বাঁচাতে পারবে না। তবে সেরাম ইনস্টিটিউট বলেছে, করোনার নতুন স্ট্রেন ঠেকাতে খুব তাড়াতাড়ি নতুন টিকা বানাতে পারে তারা। কোভিশিল্ড টিকার ফর্মুলায় বদল করে এমন টিকা তৈরি করা হবে যা করোনার যে কোনও প্রজাতির সংক্রমণ রুখে দিতে পারে।

You might also like