Latest News

ভারতকে জাহাজ-বিধ্বংসী ‘হারপুন’ ক্ষেপণাস্ত্র বেচতে রাজি আমেরিকা, ৮ কোটির চুক্তি হয়েছে

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ভারতকে এমএইচ-৬০ মাল্টিরোল হেলিকপ্টার পাঠিয়েছে আমেরিকা। কোয়াড চতুর্দেশীয় অক্ষ তৈরির পাশাপাশি প্রতিরক্ষার অস্ত্রশস্ত্র কেনাবেচাতেও দুই দেশ একে অপরের পাশে দাঁড়িয়েছে। ভারত-প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলে চিনের আধিপত্য খর্ব করে সুস্থিতি বজায় রাখার জন্য কোয়াডের দেশগুলি নিজেদের যুদ্ধাস্ত্রের শক্তি কয়েকগুণ বাড়িয়ে তুলছে । সমুদ্র নিরাপত্তার জন্য ভারতেরও দরকার হারপুনের যুদ্ধজাহাজ বিধ্বংসী শক্তিশালী ক্ষেপণাস্ত্র। আমেরিকার থেকে এই ক্ষেপণাস্ত্র কেনার ব্যাপারে আগেও কথাবার্তা হয়েছিল ভারতের। এতদিনে সেই চুক্তি করতে রাজি হয়েছে আমেরিকা।

হারপুন শুধু দ্রুতগতির মিসাইল নয়, যে কোনও আধুনিক জাহাজ, যুদ্ধজাহাজ নিমেষে গুঁড়িয়ে দিতে পারে। এমন আধুনিক ক্ষেপণাস্ত্রের জন্য আমেরিকার সঙ্গে কথাবার্তা চলছিল সেই ট্রাম্প জমানা থেকেই। মার্কিন কংগ্রেস এতদিনে সেই অনুমতি দিয়েছে। পেন্টাগনের ডিফেন্স সিকিউরিটি কোঅপারেশন এজেন্সি (ডিএসসিএ) এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ভারতকে হারপুন ক্ষেপণাস্ত্র বিক্রি করতে রাজি আমেরিকা। দুই দেশের মধ্যে ৮ কোটি ২০ লক্ষ টাকার চুক্তি হয়েছে। হারপুন জয়েন্ট কমন টেস্ট সেট (জেসিটিএস) আমেরিকার থেকে কিনবে ভারত।

US green signals Harpoon missile deal with India for $82 billion -  Telegraph India

হারপুন জাহাজ-বিধ্বংসী ক্ষেপণাস্ত্র। ১৯৭৭ সালে তৈরি করে ম্যাকডোনেল ডগলাস নামে একটি কোম্পানি, বর্তমানে যার নাম বোয়িং ডিফেন্স, স্পেস অ্যান্ড সিকিউরিটি। ৩.৮৪ মিটার দৈর্ঘ্যের হারপুন মিসাইল যে কোনও রকমের সাবমেরিন ধ্বংস করার ক্ষমতা রাখে। পেন্টাগন জানিয়েছে, এই মিসাইলের টার্গেট নির্ভুল। পি-৩ অরিয়ন, এভি-৮বি হারিয়ার-২, মার্কিন বায়ুসেনার বি-৫২এইচ বোমারু বিমানে এই ধরনের মিসাইল ব্যবহার করা হয়।

US approves sale of Harpoon missile to India worth USD 82 million

ভারতীয় নৌবাহিনীর নজরদারি বিমান পি-৮১ এয়ারক্রাফ্টের জন্য জাহাজ ও ডুবোজাহাজ ধ্বংসকারী শক্তিশালী হারপুর মিসাইল কেনার ইচ্ছে অনেকদিনই ছিল প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের। বোয়িং পি-৮১ হল মাল্টিমিশন নজরদারি এয়ারক্রাফ্ট যা বানানো হয়েছে ভারতীয় নৌবাহিনীর জন্য। উপকূলবর্তী এলাকায় নজরদারি, মাঝসমুদ্রে শত্রু জাহাজের উপর নজর রাখা, এমনকি শত্রুপক্ষের সাবমেরিনকে ঘায়েল করতে হলেও এই এয়ারক্রাফ্টই অন্যতম বড় ভরসা নৌবাহিনীর। ২০০৯ সাল থেকেই ভারতীয় নৌবাহিনীর অস্ত্রভাণ্ডারে শোভা পাচ্ছে এই পি-৮১ এয়ারক্রাফ্ট। হারপুন মিসাইল এই এয়ারক্রাফ্ট থেকে নিপুণ দক্ষতায় ছোড়া যাবে। হারপুন ব্লক-২ ক্ষেপণাস্ত্রের পাল্লা প্রায় ২ হাজার ২০০ কিলোমিটার। ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ৭৮৯ কিলোমিটার বেগে নির্ভুল নিশানায় ছুটে গিয়ে শত্রুপক্ষের বিমানে আঘাত হানতে পারে সেটি। শক্তিশালী রেডিও সিগনালের মাধ্যমে শত্রুপক্ষের সাবমেরিন এবং জাহাজ, দুই-ই ধ্বংস করতে সক্ষম। এমনকি গোপনেও যদি শত্রুপক্ষের সাবমেরিন হানা দেয়, নিমেষে তাকে ধ্বংস করতে সক্ষম এই ক্ষেপণাস্ত্র।

সমুদ্রে গভীরে লড়াই চালানোর জন্য ভারতের হাতে রয়েছে সাবমেরিন বিধ্বংসী এই টর্পেডো ‘বরুণাস্ত্র’। ১.২৫ টন ওজনের এই ইলেকট্রিক টর্পেডো ২৫০ কিলোগ্রাম বিস্ফোরক বহন করে আঘাত হানতে পারে প্রতিপক্ষের সাবমেরিনে। বরুণাস্ত্রের বেগ গণ্টায় ৪০ নটিক্যাল মাইল। অল্প জল এবং গভীর জলে সমান দক্ষ বরুণাস্ত্র। এই টর্পেডো বানিয়েছে ডিআরডিও।

You might also like