Latest News

পাকিস্তান থেকে টুইট, কৃষকদের উস্কে ট্র্যাক্টর র‍্যালি ভেস্তে দেওয়ার ছক, দাবি দিল্লি পুলিশের

দ্য ওয়াল ব্যুরো: পাকিস্তানে ৩০০-র বেশি টুইটার হ্যান্ডলের খোঁজ পাওয়া গিয়েছে যেখান থেকে ক্রমাগত দিল্লির বাইরে কৃষক আন্দোলনকে উস্কে দেওয়ার কাজ করা হয়েছে। এইসব টুইটার অ্যাকাউন্ট থেকে প্রতিনিয়ত কৃষক আন্দোলনকে নিয়ে টুইট করা হয়েছে, কিন্তু সেটা কৃষকদের উস্কানোর জন্য, এমনটাই দাবি দিল্লি পুলিশের। এমনকি আগামী ২৬ জানুয়ারি দিল্লিতে ট্র্যাক্টর র‍্যালি ভেস্তে দেওয়ারও নাকি চেষ্টা করা হয়েছে এমনটাই জানিয়েছে পুলিশ।

দিল্লির স্পেশ্যাল কমিশনার অফ পুলিশ (ইন্টেলিজেন্স) দীপেন্দ্র পাঠক রবিবার সাংবাদিক সম্মেলন করে এই কথা জানান। তিনি বলেন, প্রজাতন্ত্র দিবসের দিন কৃষকদের ট্র্যাক্টর র‍্যালিতে পর্যাপ্ত নিরাপত্তা থাকবে।

দীপেন্দ্র বলেন, “মানুষকে ভুল বুঝিয়ে কৃষক আন্দোলন ও ট্র্যাক্টর র‍্যালিকে ভেস্তে দেওয়ার জন্য গত ১৩ থেকে ১৮ জানুয়ারি পাকিস্তানে ৩০০-র বেশি বেনামি টুইটার হ্যান্ডল তৈরি করা হয়েছে। বিভিন্ন সংস্থা থেকে এই খবর পাওয়া গিয়েছে। এটা আমাদের জন্য চ্যালেঞ্জ। প্রজাতন্ত্র দিবসের প্যারেড হয়ে যাওয়ার পরেই কড়া নিরাপত্তার মধ্যে এই ট্র্যাক্টর র‍্যালি হবে।”

কিন্তু কীভাবে পাকিস্তান থেকে টুইট করে ভারতে চলা একটা আন্দোলনকে উস্কানো হচ্ছে সেই বিষয়ে একটু বিস্তারিত জানানোর কথা বললে দীপেন্দ্র বলেন, “একটা আশঙ্কা আছে যে পাকিস্তানের কিছু জঙ্গি সংগঠন কিছু সমস্যা তৈরি করতে পারে। আইন-শৃঙ্খলা নষ্ট হতে পারে। যে ৩০৮ টুইটার হ্যান্ডলকে চিহ্নিত করা হয়েছে সেখান থেকে ক্রমাগত কৃষক আন্দোলন নিয়ে টুইট করা হয়েছে ও তার বিষয়ে অনেক কিছু বলা হয়েছে।”

গত নভেম্বর থেকে দিল্লি সীমান্তে বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন কৃষকরা। কেন্দ্রের পাশ করা তিনটি কৃষি আইন প্রত্যাহার করার দাবি নিয়ে আন্দোলন করছেন তাঁরা। ইতিমধ্যেই কেন্দ্রের সঙ্গে দশবারের বেশি বৈঠকে বসেছে প্রায় ৪০টি কৃষক সংগঠন। কিন্তু তাতে সমাধান সূত্র বের হয়নি। নিজেদের দাবি থেকে সরতে নারাজ কৃষকরা। অন্যদিকে কেন্দ্রের তরফে বারবার ভিন্ন ভিন্ন প্রস্তাব দেওয়া হলেও কৃষি আইন প্রত্যাহারের দাবি নিয়ে তারা কিছু বলছে না বলেই অভিযোগ কৃষকদের।

কৃষি আইনে এই মুহূর্তে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে সুপ্রিম কোর্ট। তাদের তরফে একটি কমিটি গঠন করা হয়েছে। সব পক্ষের সঙ্গে কথা বলে সেই কমিটির একটি রিপোর্ট জমা দেওয়ার কথা। যদিও সেই কমিটিকে মানতে চাইছেন না কৃষকরা। সমাধান সূত্র না বের হওয়ায় ২৬ জানুয়ারি দিল্লিতে ট্র্যাক্টর র‍্যালির আয়োজন করেছেন কৃষকরা। আর এই র‍্যালি ঘিরেই এবার সামনে এল পাকিস্তান থেকে টুইটের প্রসঙ্গ।

You might also like