Latest News

চোরাপাচার রুখবে, অপরাধীদের খুঁজে বের করবে, ‘সুপার স্নিফার স্কোয়াড’ তৈরি করছে বন দফতর

দ্য ওয়াল ব্যুরো: বিস্ফোরক খুঁজে বের করাতে এরা দক্ষ। বিপদসঙ্কুল স্থানে ঝাঁপিয়ে পড়ে উদ্ধার করেছে শত শত মৃত্যুপথযাত্রীকে। গোপন ডেরায় জঙ্গিদের লুকিয়ে রাখা আইইডি-র সন্ধান দিয়ে প্রাণ বাঁচিয়েছে সেনা অফিসার ও সাধারণ মানুষের। সেনা জওয়ানদের কাছে এরা হিরো। চোরাচালান রোখা থেকে আততায়ীদের খোঁজ, বাহিনীতে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত স্নিফার ডগদের চাহিদা বিশাল। দেশের বিভিন্ন রাজ্যের বন দফতরে আরও ১৪টি বিশেষ প্রশিক্ষণ দেওয়া স্নিফার কুকুর (Sniffer Dog) নেওয়া হচ্ছে।

ওয়াইল্ডলাইফ স্লিফার ডগের নতুন ইউনিট তৈরি হচ্ছে দেশে। জঙ্গলে চোরাচালান রোখা, পাচারকারীদের চিহ্নিত করতে বিশেষ প্রশিক্ষিত সারমেয় বাহিনী তৈরি করা হচ্ছে। প্রশিক্ষণ চলবে হরিয়ানার পাঁচকুলা ক্যাম্পে। ট্রেনিং দেবেন ইন্দো-তিব্বতীয় সীমান্ত রক্ষী বাহিনীর দক্ষ অফিসাররা। প্রতিটি কুকুরের জন্য দু’জন করে হ্যান্ডলার থাকবেন। তাঁদেরও প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে। ট্রেনিং পাওয়া এই বিশেষ সারমেয় বাহিনীর নাম হবে ‘সুপার স্নিফার স্কোয়াড’। চোরাপাচারকারীদের উপদ্রব রুখতে বন দফতরের আধিকারিকদের ছায়াসঙ্গী হবে এই কুকুররা। তাছাড়া অপরাধীদের খুঁজে বের করা, চোরাচালান রোখা, মাদক ও অস্ত্রশস্ত্রের হদিশ করা ইত্যাদি যে কোনও অভিযানেই এরা পুলিশ ও সেনার সঙ্গী হতে পারবে।

ট্রাফিক’স ইন্ডিয়ার প্রধান ড. সাকেত বাদোলা বলেছেন, যে কোনও অপরাধ দমন অভিযানে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত স্নিফার ডগদের দক্ষতা প্রমাণিত। নতুন যে ইউনিট তৈরি হবে তার মধ্যে তিনটি সুপার স্নিফার স্কোয়াড যোগ দেবে মহারাষ্ট্র বন দফতরে, দুটি ছত্তীসগড়স কর্নাটক ও ওড়িশার বন দফতরে, একটি উত্তরপ্রদেশ, গুজরাট ও তামিলনাড়ু বন দফতরে।

রেল সুরক্ষা বাহিনীতেও ট্রেনিং পাওয়া স্নিফার ডগদের নেওয়ার কথা ভাবা হচ্ছে। ওয়াইল্ডলাইফ সুপার স্নিফার স্কোয়াডের দুটি আরপিএফে যোগ দেবে বলে জানা গেছে।

বেলজিয়ান ম্যালিনয়েস গোত্রের সেরা স্নিফার ডগ আছে ভারতীয় সেনায়

সিরিয়ার ইদলিবে অন্ধকার সর্পিল সুড়ঙ্গে আবু বকর আল-বাগদাদির পিছু ধাওয়া করে খবরের শিরোনামে চলে এসেছিল মার্কিন গোয়েন্দাদের হিরো সেই বেলজিয়ান ম্যালিনয়েস। মার্কিন প্রেসিডেন্টের নিরাপত্তা বাহিনীতেও রয়েছে বেলজিয়ান ম্যালিনয়েস প্রজাতির প্রশিক্ষিত কুকুর বাহিনী। এবার এই সারমেয় বাহিনীকে ভারতীয় সেনার জন্যও প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে।

জঙ্গি নিধন অভিযানে ভারতের গোয়েন্দাদের সাহায্য করতে এবং যে কোনও সন্ত্রাসবিরোধী অভিযানে সেনাবাহিনীর ছায়াসঙ্গী হতে এই সাহসী ও দক্ষ বেলজিয়ান কুকুরদেরই প্রশিক্ষণ দেবে সেনাবাহিনী। ডগ স্কোয়াগের বিশেষজ্ঞরা বলছেন, সেনা স্নিফার ডগ তারাই হতে পারে যাদের ঘ্রাণশক্তি সাঙ্ঘাতিক। ভারতের সিআরপিএফ, আইটিবিপি ও এনএসজি-র মতো বাহিনী স্পেশাল অপারেশনের জন্য ট্রেনিং দেয় এই প্রজাতির কুকুরদের। পাঠানকোটে জঙ্গি হামলার সময়ে এনএসজি-র জওয়ানদের লুকিয়ে থাকা জঙ্গিদের খুঁজে বের করতে সাহায্য করেছিল এই প্রজাতির কুকুর। বিস্ফোরক খুঁজে বার করা, দুর্গম জায়গায় জঙ্গিদের খোঁজ দেওয়া এমনকি উদ্ধারকাজের জন্যও কাজে লাগানো হয় বেলজিয়ান ম্যালিনয়েসদের। য়ে কোনওরকম অপরাধদমন অভিযানে এদের চাহিদা বিশাল।

পড়ুন দ্য ওয়ালের সাহিত্য পত্রিকা সুখপাঠ

You might also like