Latest News

মোদীর ভাবনায় ‘ডোনেট পেনশন’, শ্রমিক কল্যাণে ৩৬ হাজার দেওয়ার আর্জি, চর্চা দিল্লিতে

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ক্ষমতায় এসেই দেশবাসীর প্রতি আহ্বান জানিয়েছিলেন, সঙ্গতি থাকলে সরকারের দেওয়া রান্নার গ্যাসের ভর্তুকির সিলিন্ডার ছেড়ে দিন। যাতে ভর্তুকির টাকায় আরও বেশি গরিব পরিবারকে সস্তার সিলিন্ডার দেওয়া যায়। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ওই আহ্বানে ভালই সাড়া মিলেছিল। সেই একই রাস্তায় এবার দেশের কয়েক কোটি অসংগঠিত শ্রমিকের স্বার্থে নাগরিকদের প্রতি মুক্ত হস্তে দান করার আহ্বান জানাতে পারেন প্রধানমন্ত্রী।

কেন্দ্রের শ্রম মন্ত্রক একটি প্রস্তাব নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর দফতরের সঙ্গে আলোচনা চালাচ্ছে। তাতে বলা হয়েছে, নাগরিকেরা বছরে ৩৬ হাজার টাকা সংশ্লিষ্ট সরকারি তহবিল দান করলে সেই টাকায় একজন দুঃস্থ শ্রমিককে মাসে তিন হাজার টাকা করে পেনশন দেওয়া সম্ভব হবে।

বছর কয়েক আগে মোদী সরকার প্রধানমন্ত্রী শ্রম মনধন যোজনা নামে একটি প্রকল্প চালু করে। তাতে সরকার দুঃস্থ শ্রমিকদের মাসে তিন হাজার টাকা করে দেওয়া হয়।

এই স্কিমে এখনও পর্যন্ত ৪৬ লাখ শ্রমিক নাম লিখিয়েছেন। এর মধ্যে ৮ লাখ শ্রমিক হরিয়ানা থেকে নাম লিখিয়েছেন। উত্তরপ্রদেশ থেকে ৬ লাখ শ্রমিক এই স্কিমে নাম নথিভুক্ত করে ফেলেছেন এর মধ্যেই। সেখানে বাংলা থেকে মাত্র ৭৫ হাজার শ্রমিক এই স্কিমের জন্য নাম নথিভুক্ত করেছেন।

সরকারের তরফে জানানো হয়েছে, ৬০ বছর ঊর্ধ্ব অসংগঠিত শ্রমিক অর্থাৎ যাঁদের কোনরকম পেনশন, গ্রাচুইটি বা ইএসআই স্কিমের আওতায় নেই এমন শ্রমিকরাই এই সুবিধা পাবেন। তবে এখনও পর্যন্ত যে সংখ্যক শ্রমিক এই খাতে নাম লিখিয়েছেন তা অনেক কম বলে মনে করছে কেন্দ্রীয় সরকার।

কেন্দ্রীয় সরকারের প্রস্তাবিত স্কিমের নাম ‘ডোনেড পেনশন’। এই স্কিমে দেশবাসীর উদ্দেশে আবেদন করা হবে তারা যেন অন্তত একজন অসংগঠিত শ্রমিকের পেনশনের দায়িত্ব নেয়। এই জন্য প্রতি মাসে ৩ হাজার টাকা, অর্থাৎ বছরে ৩৬ হাজার টাকা কেন্দ্রীয় তহবিলে জমা দিতে হবে নাগরিকদের। মোদী সরকার মনে করেন, ভারতে অনেকেই আছেন যাঁরা বছরে এই অর্থ দিতে পারবেন তহবিলে।

মোদীর এই ধরণের ভাবনা এই প্রথম নয়। এর আগেও ভর্তুকি গ্যাস সিলিন্ডারের ক্ষেত্রেও একই ধারা অবলম্বন করেছিল সরকার। প্রধানমন্ত্রীর তরফে অনুরোধ করা হয়েছিল, সম্পন্ন গৃহস্থরা যেন ভর্তুকি গ্যাসের লাইন ছেড়ে দেন। তাতে বিপুল সাড়া পড়েছিল দেশজুড়ে। কেন্দ্রীয় সরকারের তথ্য অনুযায়ী, ২০১৯ সাল পর্যন্ত প্রায় ১ কোটি ৪ লক্ষ মানুষ গ্যাস সিলিন্ডারের ভর্তুকি ছেড়ে দিয়েছিলেন।

এই ভর্তুকির টাকা দিয়েই দরিদ্রদের বিনামূল্যে গ্যাস সিলিন্ডার দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছিল মোদী সরকার। নাম ‘প্রধানমন্ত্রী উজালা যোজনা’। সেই প্রকল্পের ধারা ধরেই শ্রমিকদের জন্য স্কিম আনতে চলেছে কেন্দ্র।

মোদী সরকারের নতুন ভাবনা, শ্রমিকদের টাকা দেওয়ার দায়িত্ব পুরোটাই সরকারের কাঁধে রাখতে চাইছেন না। সেই দায়িত্ব কিছুটা দেশের নাগরিকদের কাঁধে দিতে চাইছেন তিনি। যাঁরা এই দায়িত্ব নেবেন তাঁদের আয়করে কিছুটা ছাড় দেওয়ার কথাও ভাবা হচ্ছে।রাজনৈতিক মহলের মতে, মাছের তেলে মাছ ভাজার মত ভাবনা মোদীর আগে কেউ করেননি।

You might also like