Latest News

গাছ কাটা রুখতে জঙ্গল ঘুরে ঘুরে গাছের গায়ে শিবের ছবি লাগাচ্ছেন পরিবেশকর্মী

দ্য ওয়াল ব্যুরো: রাস্তা চওড়া করতে গাছ কাটতে হবে বলে খুব দুঃখ ছত্তিশগড়ের পরিবেশকর্মী বীরেন্দ্র সিংয়ের।ছত্তিশগড়ের বালোদ জেলায় তারউদ থেকে দাইহান পর্যন্ত ৮ কিমি রাস্তা সম্প্রসারণের প্রস্তাব দিয়েছে পূর্ত দপ্তর। কিন্তু কিছুতেই এজন্য বৃক্ষচ্ছেদনের সিদ্ধান্ত মানতে পারছেন না বীরেন্দ্র। স্থানীয় বাসিন্দারা এলাকার উন্নয়ন চান,তবে বনজঙ্গলের ক্ষতি করে নয় বলে জানিয়েছেন তিনি।

বীরেন্দ্রকে উদ্ধৃত করে সংবাদসংস্থা এএনআই বলেছে, কর্তৃপক্ষ বলছে, এই প্রকল্পের জন্য মাত্র ২৯০০ টি গাছ কাটতে হবে, কিন্তু ছোট ছোট গাছের কথা বলা হচ্ছে না, সেগুলি যোগ করলে সংখ্যাটা ২০ হাজার ছাড়িয়ে যাবে। পরিবেশ বাঁচাতে বনজঙ্গল থাকা খুবই জরুরি, তাই স্থানীয় গ্রামগুলির বাসিন্দাদেরও তিনি তাঁর পাশে দাঁড়ানোর আবেদন করেছেন। এখানেই শেষ নয়, গাছ কাটার সিদ্ধান্ত থেকে কর্তৃপক্ষকে বিরত রাখতে গাছের গায়ে ভগবান শিবের ছবি লাগাচ্ছেন তিনি। বীরেন্দ্র বলেছেন, এবার এখনও বৃষ্টি হয়নি এলাকায়। দেশের নানা অংশে অবিরাম বর্ষণ হলেও বালোদে যতটা বৃষ্টি দরকার, তার কিছুই হয়নি।

বীরেন্দ্র জানিয়েছেন, প্রথম তাঁরা চিপকো আন্দোলন শুরু করেন, তারপর রাস্তার মোড়ে মোড়ে পরিবেশ বাঁচাতে পোস্টার, ব্যানার লাগান। গাছের গায়ে রক্ষাসূত্র বাঁধেন। এবার দেবদেবীর ছবি লাগাচ্ছেন যাতে সেগুলি কাটা না পড়ে। বীরেন্দ্র বলছেন, বনজঙ্গল কেটে সাফ করার ফলে বিশ্ব উষ্ণায়ন, দূষণ-দুটোই হচ্ছে। পৃথিবীকে বাঁচাতে হলে গাছগাছালি রক্ষা করতে হবে।

গত মাসে বিশ্ব পরিবেশ দিবসেই নাগপুরের কিছু পরিবেশকর্মী ও সাধারণ নাগরিক আজিনি এলাকায় প্রায় ৫ হাজার গাছ কাটার পরিকল্পনার বিরুদ্ধে মৌন মিছিল করেন। রেল বিকাশ নিগম লিমিটেড ও ন্যাশনাল হাইওয়েস অথরিটি অব ইন্ডিয়ার যৌথ উদ্যোগে ইন্টার মডেল স্টেশন প্রকল্পের জন্য মে মাসে গাছ কাটার নির্দেশ দেয় নাগপুর পুরসভার উদ্যান বিভাগ।  এর বিরুদ্ধেই যুদ্ধ ঘোষণা করেছেন বীরেন্দ্রর মতো পরিবেশকর্মীরা।

You might also like