Latest News

Fact Check: নগেন্দ্র রাষ্ট্রপতি পদক পাননি, পেলেন কমিশনের পুরস্কার

দ্য ওয়াল ব্যুরো: নির্বাচনে নিষ্ঠার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করার জন্য জাতীয় ভোটার দিবসে দেশের বিভিন্ন রাজ্যের জেলাশাসক ও পুলিশ সুপারদের পুরস্কৃত করেছে জাতীয় নির্বাচন কমিশন। তার মধ্যে রয়েছেন ভোটের দিন নন্দীগ্রামের দায়িত্ব সামলানো এবং বীরভূমের এসপির দায়িত্ব নিয়ে সেই জেলায় শান্তিপূর্ণ ভোট পরিচালনা করা আইপিএস তথা বর্তমান বীরভূমের পুলিশ সুপার নগেন্দ্র ত্রিপাঠী। প্রসঙ্গত, বেশ কিছু জায়গায় বলা হচ্ছে রাষ্ট্রপতি পদক পেয়েছেন নগেন্দ্র। কিন্তু ব্যাপারটা তা নয়।

জাতীয় ভোটার দিবস উপলক্ষ্যে প্রতিবছরই আইএএস, আইপিএস-দের সম্মানিত করে নির্বাচন সদন। এবারও বাংলার একাধিক জেলাশাসক তা পেয়েছেন। তাঁদের মধ্যেই রয়েছেন নগেন্দ্র। এদিনের অনুষ্ঠানে উপরাষ্ট্রপতি বেঙ্কাইয়া নায়ডুর উপস্থিত থেকে সমস্ত অফিসারদের সম্মানিত করার কথা ছিল। কিন্তু উপরাষ্ট্রপতি কোভিড আক্রান্ত হয়ে আপাতত হোম আইসোলেশনে রয়েছেন হায়দরাবাদে। তাই তিনি ছিলেন না। সম্মানিত করেন কেন্দ্রীয় আইনমন্ত্রী কিরেন রিজিজু। সেখানেই কমিশনের তরফে পুরস্কার পান নন্দীগ্রাম ও বীরভূমের ভোটে নিষ্ঠার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করা এইআইপিএস।

নন্দীগ্রামের ভোটের দিন সমস্ত আলো শুষে নিয়েছিলেন নগেন্দ্র। ভোটের দিন বয়াল প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পৌঁছেছিলেন নন্দীগ্রামের তৃণমূল প্রার্থী তথা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি যখন নগেন্দ্রর নিরপেক্ষতা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন, তখন মুখ্যমন্ত্রীর চোখে চোখ রেখে তাঁর উর্দি ধরে সিনিয়র আইপিএস অফিসার নগেন্দ্র ত্রিপাঠী স্পষ্ট বলেছিলেন, “ম্যাডাম এই খাকি পরে কোনও দাগ নেব না।” মমতাকে বলতে শোনা যায়, দাগ তো অনেকেই নিয়ে নিয়েছে। জবাবে নগেন্দ্র বলেন, “আমি নেব না ম্যাডাম।”

You might also like