Latest News

সতর্কতায় খামতি নয়, বিসর্জনের সময় বেঁধে দিল নবান্ন

দ্য ওয়াল ব্যুরো: কোভিড আবহেই এসে গেছে দুর্গা পুজো। পুজোর একাধিক গাইডলাইন ইতিমধ্যেই প্রকাশ করা হয়েছে নবান্নের (nabanna) তরফে। এবার বিসর্জনের সময়বিধি বেঁধেও নোটিস জারি করে দিল রাজ্য সরকারের স্বরাষ্ট্র দফতর। সেই সঙ্গে জানিয়ে দিল, নিরাপত্তায় যেন কোনও খামতি না থাকে।

নোটিসে বলা হয়েছে, ১৫ অক্টোবর থেকে ১৮ অক্টোবরের মধ্যে বিসর্জনের সময় বাঁধতে হবে পুজো কমিটিগুলিকে।

পাশাপাশি নোটিসে উল্লেখ করা হয়েছে, গোটা পুজোজুড়েই আলাদা সতর্কতা নিতে হবে সর্বত্র। এই প্রসঙ্গে উল্লেখ করা হয়েছে দেশে জারি করা জঙ্গি-সতর্কতার কথা। সে কথা মাথায় রেখে বিশেষ জোর দিয়ে বলা হয়েছে, নজরদারিতে যেন কোনও খামতি না পড়ে। পুজো কমিটিগুলো যাতে যথেষ্ট সংখ্যক ভলান্টিয়ার রাখেন, সন্দেহজনক কাউকে যাতে ঢুকতে না দেওয়া হয় উৎসবের ভিড়ে, সে কথাও উল্লেখ করা হয়েছে।

বাসন্তীর গ্রামে ভাঙল নদীবাঁধ, হুড়মুড়িয়ে জলে ভেসে গেল ৩০টির বেশি ঘরবাড়ি

শুধু তাই নয়, প্রতিটি পুজো কমিটির তরফে স্থানীয় থানায় যোগাযোগ রাখতে হবে। বড় পুজোগুলিকে আবশ্যক ভাবে বসাতে হবে সিসিটিভ। ওয়াচ টাওয়ার নির্মাণ করে নজরদারি করতে হবে ভিড়ে।

সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় যেন কোনও ফাঁক না থাকে, সেটিও উল্লেখ করা হয়েছে নোটিসে। ঘনজনবসতিপূর্ণ এলাকায়, স্পর্শকাতর এলাকায় বিশেষ পদক্ষেপ করতে হবে।

বিসর্জনের তারিখ, সময়, জায়গা সব ঠিক করে স্থানীয় পুলিশকে জানিয়ে রাখার কথাও বলা হয়েছে নোটিসে। ১৫, ১৬, ১৭, ১৮ তারিখের মধ্যেই। গোটা উৎসবে স্থানীয় মানুষজনের যাতে কোনও রকম অসুবিধা না হয়, সেটা দেখাও পুজো উদ্যোক্তাদের দায়িত্ব। মাইক্রোফোন বাজানোর ব্যাপারেও সতর্ক থাকতে হবে।

পড়ুন দ্য ওয়ালের সাহিত্য পত্রিকা ‘সুখপাঠ’

You might also like