Latest News

মুকেশ অম্বানীর জিও-তে বিনিয়োগ করতে পারে সৌদি ও মার্কিন সংস্থা

দ্য ওয়াল ব্যুরো : তেল ও পেট্রোপণ্যের বাইরে ডিজিটাল ক্ষেত্রেও ব্যবসা বাড়াতে চান এশিয়ার ধনীতম ব্যক্তি মুকেশ অম্বানী। সেই ব্যবসায় বিনিয়োগ করার কথা ভাবছে সৌদি আরবের সভারিন ওয়েলথ ফান্ড ও আমেরিকার সংস্থা জেনারেল আটলান্টিক। সৌদি আরবের ওই পাবলিক ইনভেস্টমেন্ট ফান্ডের মূল্য ৩২ হাজার কোটি ডলার। একটি সূত্রে খবর, রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেডের জিও প্ল্যাটফর্মের কিছু শেয়ার কিনতে চায় সভারিন ওয়েলথ ফান্ড।

আমেরিকার বিনিয়গ সংস্থা জেনারেল আটলান্টিক অতীতে এয়ার বিএনবি ইনকর্পোরেটেড এবং উবের টেকনোলজিস ইনকর্পোরেটেডে বিনিয়োগ করেছে। তারা জিও প্ল্যাটফর্মে সাড়ে আট থেকে সাড়ে নয় কোটি ডলার পর্যন্ত বিনিয়োগ করার কথা ভাবছে। চলতি মাসেই জিও প্ল্যাটফর্মের সঙ্গে ওই দুই সংস্থার চুক্তি পাকা হতে পারে। যদিও আনুষ্ঠানিকভাবে এখনও কিছুই ঠিক হয়নি। আগামী দিনে দু’টি ফান্ডই পরিকল্পনা বদলে ফেলতে পারে।

গত এপ্রিলে কয়েকটি বড় সংস্থা জিও প্ল্যাটফর্মে বিনিয়োগ করেছে। তার অন্যতম ফেসবুক। গত এপ্রিলে ফেসবুক রিলায়েন্সের ডিজিটাল ইউনিটের ১০ শতাংশ শেয়ার কেনে। তার মূল্য ছিল ৫৭০ কোটি ডলার। সিলভার লেক পার্টনার্স ও ভিস্টা ইকুইটি পার্টনার্স গত সপ্তাহে জানিয়েছে, তার সব মিলিয়ে বিনিয়োগ করবে ২২৫ কোটি ডলার।

বিনিয়োগকারীদের আশা, খুব দ্রুত ভারতের বিরাট বাজারে জায়গা করে নেবে জিও। খুচরো ব্যবসা থেকে শিক্ষা এবং পেমেন্ট, সব ক্ষেত্রেই প্রভাব ফেলবে জিও-র প্রযুক্তি। ভারত হচ্ছে বিশ্বের প্রধান ইন্টারনেট মার্কেটগুলির মধ্যে অন্যতম যেখানে অ্যামাজন ডট কম ইনকর্পোরেটেড, ওয়ালমার্ট ইনকর্পোরেটেড এবং আলফাবেট ইনকর্পোরেটেডের উপস্থিতি রয়েছে। এই সংস্থাগুলি ভারতের বাজারে পরস্পরের মধ্যে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে।

বিভিন্ন বড় প্রযুক্তি সংস্থা ও প্রাইভেট ইকুইটি ফার্মের বিনিয়োগের ফলে রিলায়েন্স ইন্ডাস্ট্রিজের ঋণ কমবে। একইসঙ্গে দাম বাড়বে জিও-র।

You might also like