Latest News

প্রধানমন্ত্রীকে নিরাপত্তা দেবে কর্নাটকের এই নেড়ি কুকুর, পোশাকি নাম মুধল হাউন্ড

দ্য ওয়াল ব্যুরো:‌ নেড়ি কুকুর নিরাপত্তা দেবে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে!‌ সম্প্রতি প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা এসপিজি–তে (‌স্পেশাল প্রোটেকশন গ্রুপ)‌ দুটি নেড়ি কুকুর অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে। কুকুর দুটি কর্নাটকের বিখ্যাত মুধল হাউন্ড (Mudhol Hounds) জাতের। যা ওই রাজ্যের দেশি বা নেড়ি কুকুর। সীমান্ত পাহারা এবং বিস্ফোরক খোঁজার কাজে বিশেষ পারদর্শী মুধলদের এতদিন প্রশিক্ষণ দিয়ে ব্যবহার করত ভারতীয় সেনা। এবার ওই কুকুর কাজ করবে প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তা রক্ষী বাহিনীতেও।

কর্নাটকের ক্যানাইন রিসার্চ অ্যান্ড ইনফরমেশন সেন্টারে ইতিমধ্যেই ওই দুটি কুকুরছানাকে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে। তারপর অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে প্রধানমন্ত্রীর বিশেষ সুরক্ষা স্কোয়াডে। এই কুকুররা দারুণ চটপটে, দৃষ্টিশক্তি তীক্ষ্ণ, এবং দেখতেও সুন্দর। লম্বা ও মেদহীন টানটান চেহারার এই কুকুর (Mudhol Hounds) বহুদূর দৌড়তে পারে।

চলতি বছরের এপ্রিলে বেশ কয়েকটি পরীক্ষার পর ওই কুকুর দুটিকে বাছা হয়। ট্রেনিংয়ের সময় কুকুরদু’‌টির বয়স ছিল মাত্র দু’‌মাস। জানা গেছে, প্রধানমন্ত্রী মোদী নিজেই ভারতীয় কুকুর ডগ স্কোয়াডে অন্তর্ভুক্ত করার ইচ্ছা প্রকাশ করেছিলেন। সেইমতো অনেক ভাবনা–চিন্তার পর মুধলদের বেছে নেওয়া হয়েছে।

এসপিজি–তে অন্তর্ভুক্ত করার আগে কুকুরছানা দুটিকে চার মাসের কঠোর প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে। কুকুর বাছার সময় দেখা হয়েছে, তারা কত দ্রুত দৌড়তে পারে, কীভাবে আদেশে সাড়া দেয় এবং অনুসরণ করে। কর্নাটকের ওই কেন্দ্রে ৪০টি প্রাপ্তবয়স্ক মুধোল কুকুর রয়েছে। ওই কুকুররা মালিকের প্রতি অতিরিক্ত অনুগত। সেইসঙ্গে দুর্দান্ত শিকারী। লম্বায় ৭২ সেন্টিমিটার এবং ওজন ২০ থেকে ২২ কেজির মধ্যে থাকে মুধলদের। সজাগ চোখ, প্রসারিত পা এবং সংকুচিত পেটের এই কুকুর বিদেশি কোনও কুকুরের থেকে কম নয় বলে জানিয়েছেন প্রশিক্ষকরা।

কুকুরের এই জাতটির নাম মুধল রাজ্য থেকে এসেছে। ঘোরপাড়ে তখন মারাঠারা শাসন করত। এবং তৎকালীন বোম্বের অংশ ছিল। মুধলের শ্রীমন্ত রাজেসাহেব মালোজিরাও ঘোরপড়ে (১৮৮৪-১৯৩৭) কুকুরের এই বিশেষ জাতটিকে লালন পালন করতেন।

মুধল হাউন্ড প্রধানত দাক্ষিণাত্যের মালভূমিতে পাওয়া যেত। ব্রিটিশরা ক্যারাভান হাউন্ড নামেও ডাকত। রাজেসাহেব লক্ষ করেন, মুধল এলাকার (আধুনিক বাগালকোট) স্থানীয় উপজাতিরা শিকারের জন্য বেদা নামে একটি শিকারী কুকুর ব্যবহার করছে। কুকুরগুলো দেখতে সুন্দর, চটপটে এবং স্বভাবে রাজকীয়তা রয়েছে। তিনিও ওই কুকুর পোষা শুরু করেন। এবং প্রজনন করান। ওই কুকুরই মুধল হাউন্ড নামে পরিচিত হয়। রাজা ইংল্যান্ড সফরে গিয়ে পঞ্চম জর্জকে বাছাই এক জোড়া মুধোল কুকুর উপহার দিয়েছিলেন।

‘ভারতে গিয়ে বলেছি, শেখ হাসিনার সরকারকে টিকিয়ে রাখতে হবে’: বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী

You might also like