Latest News

ছেলের পড়ায় সাহায্য করতে করতে পরীক্ষায় বসলেন মাও! একসঙ্গে পেলেন সরকারি চাকরি

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ছেলেকে পড়ানোর জন্য নিজেও বই পড়তে শুরু করেছিলেন মা (Mother Son)। ভেবেছিলেন ছেলের বই নিজে পড়লে, তাতে কী আছে না আছে জানা থাকলে ছেলেকে পড়াশোনায় আরও বেশি করে উৎসাহ দিতে পারবেন। ৯ বছর পর সেই ছেলের সঙ্গে একসঙ্গে সরকারি চাকরি পেলেন মাও! দুজনেই একসঙ্গে চাকরিজীবন শুরু করবেন খুব শিগগিরই।

কেরলের (Kerala) বিন্দু এখন গর্বিত মা। সংবাদমাধ্যমের সামনে তিনি জানিয়েছেন, তাঁর ছেলে যখন ক্লাস টেনে পড়ছে, তখন থেকে তাকে সরকারি চাকরির পরীক্ষার জন্য তৈরি করতে চেয়েছিলেন তিনি। ছেলেকে পড়াশোনায় উৎসাহ দেবেন, সাহায্য করতে পারবেন এই ভেবে নিজে কোচিংয়েও যেতেন। কেরল পাবলিক সার্ভিস কমিশনের পরীক্ষাই ছিল তাঁর এবং তাঁর ছেলের পাখির চোখ। ৯ বছর পর তাঁদের চেষ্টা সফল হয়েছে। শুধু ছেলেই নয়, বিন্দু নিজেও পেয়ে গেছেন সরকারি চাকরি।

চারবারের চেষ্টায় এই চাকরি পেয়েছেন ৪২ বছরের বিন্দু। পাবলিক সার্ভিস কমিশনের এলজিএস বা লাস্ট গ্রেডস সার্ভ্যান্টস পরীক্ষায় তাঁর র‍্যাঙ্ক হয়েছে ৯২ আর এলডিসি বা লোয়ার ডিভিশনাল ক্লার্ক পরীক্ষায় তাঁর ছেলের র‍্যাঙ্ক হয়েছে ৩৮।

গত ১০ বছর ধরে অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্রে শিক্ষকতা করেন বিন্দু। জানিয়েছেন, কোচিং সেন্টারের শিক্ষক-শিক্ষিকা, বন্ধুবান্ধব এবং তাঁর ছেলে তাঁকে অনেক উৎসাহ দিয়েছেন। সেই কারণেই বারবার পরীক্ষায় বসেছেন তিনি, পাশ করেছেন চারবারের চেষ্টায়।

মা-ছেলে কি একসঙ্গেই পড়াশোনা করতেন (Mother Son)?

বিন্দুর ছেলে জানিয়েছেন, একেবারেই তা নয়। তিনি একা একাই পড়তে ভালবাসেন। আর মা তো সবসময় পড়ার সময় পান না। যখন সময় পেতেন তখনই পড়তে বসতেন, তাই মায়ের সঙ্গে বসে পড়াশোনা করা হয়নি।

আরও পড়ুন: জলের বোতল নিয়ে ঝগড়া! যুবককে চলন্ত ট্রেন থেকে ছুড়ে ফেলল ২ প্যান্ট্রি স্টাফ

You might also like