Latest News

কোভিডকালে ১ লক্ষ ৪৭ হাজার ৪৯২টি শিশু অভিভাবকহীন দেশে, বাংলায় ৬,৮৩৫

 

দ্য ওয়াল ব্যুরো:‌ কোভিড অতিমারি নিয়ে এবার শিউরে ওঠার মতোই পরিসংখ্যান দিল এনসিপিসিআর (‌ন্যাশনাল কমিশন ফর প্রোটেকশন অফ চাইল্ড রাইটস)‌। ২০২০ সালের এপ্রিল পর্যন্ত ১ লক্ষ ৪৭ হাজার ৪৯২টি শিশু তাদের বাবা মা অথবা অভিভাবককে হারিয়েছে। ২০২০ সালের ১ এপ্রিল থেকে কোভিডের জেরে অথবা অন্যান্য কারণে হয় পুরোপুরি অনাথ হয়ে গিয়েছে অথবা অভিভাবকদের মধ্যে একজনকে হারিয়েছে ওই সংখ্যক শিশু।

‘‌বাল স্বরাজ’‌ নামে একটি ওয়েবসাইট চালায় কমিশন। সেখানেই অনাথ শিশুদের সম্পর্কে তথ্য দেওয়া থাকে। কমিশনের তরফ থেকে এফিডেভিটে এই অনাথ শিশুদের সম্পর্কে তথ্য আদালতে জমা দেওয়া হয়েছে। অন্য একটি পরিসংখ্যানে কমিশন জানিয়েছে রাজ্য ও কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের মাধ্যমে যে তথ্য ওয়েবসাইটে আপলোড করা হয়েছে তাতেও দেখা যাচ্ছে কোভিড ছাড়াও অন্যান্য কারণেও তারা তাদের অভিভাবকদের হারিয়েছে। কোভিড অতিমারিতে অনাথ হয়ে যাওয়া শিশুদের খাদ্য, আশ্রয় ও শিক্ষার ব্যবস্থা সম্পর্কে জানতে একটি ‘‌সুয়ো মোটো’‌ পিটিশনের পরিপ্রেক্ষিতেই অনাথ শিশুদের সম্পর্কে এই পরিসংখ্যান আদালতে হাজির করেছে কমিশন।

ওই শিশুদের মধ্যে ৭৬,৫০৮ ছেলে। ৭০,৯৮০টি শিশু মেয়ে। ৮ থেকে ১৩ বছরের শিশু রয়েছে ৫৯,০১০। ১৪–১৫ বছরের শিশু রয়েছে ২২,৭৬৩টি। ৪–৭ বছরের শিশুর সংখ্যা ২৬,০৮০। ৪ জন শিশু তৃতীয় লিঙ্গের। কমিশন জানিয়েছে ১,৫২৯টি শিশু চিলড্রেন হোমে রয়েছে। ১৯টি শিশু শেল্টার হোমে, এবং দুজন রয়েছে ওপেন শেল্টার হোম ও পর্যবেক্ষণ হোমে। ১৮৮টি শিশুকে অনাথআশ্রমে রাখা হয়েছে। ৬৬টি শিশুকে বিশেষ দত্তক সংস্থা নিয়েছে। আর ৩৯টি শিশু হস্টেলে রয়েছে।

করোনার জন্য অভিভাবকহীন ওই শিশুরা ওড়িশার ২৪,৪০৫টি, মহারাষ্ট্রের ১৯,৬২৩, গুজরাতের ১৪,৭৭০, তামিলনাডুর ১১,০১৪, উত্তরপ্রদেশের ৯,২৪৭, অন্ধ্রপ্রদেশ ৮,৭৬০, মধ্যপ্রদেশ ৭,৩৪০, পশ্চিমবঙ্গ ৬,৮৩৫, দিল্লির ৬,৬২৯, রাজস্থানের ৬,৮২৭টি শিশু রয়েছে।

You might also like