Latest News

মমতাকে নেপাল যেতে বাধা দেয়নি দিল্লি, চাইলে যেতেই পারেন, জানাল মোদী সরকার

দ্য ওয়াল ব্যুরো: শুক্রবার দুপুরে নবান্ন ও তৃণমূল সূত্রে বলা হয়েছিল, নেপালি কংগ্রেস পার্টি একটি সম্মেলনে আমন্ত্রণ জানিয়েছে মুখ্যমন্ত্রী তথা তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে। কিন্তু এবারও কেন্দ্র দিদিকে নেপাল যাওয়ার অনুমতি দিল না। এর আগে চিন ও ভ্যাটিকান সফরে যাওয়ার ছাড়পত্র দেয়নি মোদী সরকার, এ বারও তাই করল। শাসক দলের একাংশের ইঙ্গিত ছিল, স্রেফ রাজনৈতিক কারণেই বাধা দিচ্ছে দিল্লি।

কিন্তু রাতে সাউথ ব্লক সূত্রে বলা হয়েছে, “বিজেপি-সহ সব রাজনৈতিক দলকেই আমন্ত্রণ জানিয়েছে নেপাল। ব্যক্তিগত সফরের জন্য ওঁর কারও অনুমতি নেওয়ার প্রয়োজন নেই। নেপালে যাওয়ার জন্য কোনও ভিসারও দরকার নেই। বিদেশ মন্ত্রক এ ব্যাপারে কোনও বাধা দেয়নি”। অর্থাৎ মোদী সরকারের তরফে স্পষ্ট করে দেওয়া হয়েছে, নেপাল সফরের জন্য কেন্দ্রের অনুমতি নেওয়ারই কোনও প্রয়োজন ছিল না।

নয়াদিল্লির এই বক্তব্যের পর বাংলায় শাসক দলের অনেকের পাল্টা প্রতিক্রিয়াও রয়েছে। তাঁদের বক্তব্য, এই কথাটা শুক্রবার না জানিয়ে সাত দিন আগে নবান্নকে স্পষ্ট করে জানিয়ে দিলে ভাল হত না কি! আসল সময় পার করে দিয়ে জ্ঞানের কথা বলা হচ্ছে! আসল উদ্দেশ্য পুরোটাই রাজনৈতিক।

এদিকে মমতার নেপাল যাত্রা বাতিল হওয়া নিয়ে শুক্রবার প্রতিক্রিয়া জানিয়েছে কংগ্রেসও। প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরী বলেছেন, “নেপাল যেতে গেলে তো বিদেশমন্ত্রকের পাসপোর্ট-ভিসা লাগে না। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মনে করলে এক্ষুণি নেপাল চলে যেতে পারবেন। আসলে উনি নিজের দর বাড়ানোর জন্য নানান রকম কথা বলছেন”। এরপরেই অধীর বিদ্রুপের সুরে বলেন, “আপনি যদি বলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যেতে পারছেন না, আমি নিয়ে যাব। যদি দিদি পয়সা দেয় আমি দিদিকে সঙ্গে করে নিয়ে যাব। কোথায় যাবেন দিদি। নেপাল যেতে ভিসা, পাসপোর্ট কিছু লাগে না।”

You might also like