Latest News

কার্গো সমস্যায় দেরি চিনের, তাই দেশেই তৈরি হবে করোনার ব়্যাপিড টেস্ট কিট, ‘মেক ইন ইন্ডিয়া’ প্রকল্পে মিলল অনুমোদন

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ‘মেক ইন ইন্ডিয়া’ উদ্যোগের আওতায় দেশেই তৈরি হতে চলেছে করোনা বিশেষ ব়্যাপিড টেস্ট কিট। কিট বানানোর অনুমোদন পেল গুজরাতের ভক্সটুর বায়ো, দিল্লির ভ্যানগার্ড ডায়াগনস্টিকস এবং সরকারি সংস্থা এইচএলএল লাইফকেয়ার। এর বাইরেও দক্ষিণ কোরিয়া, ফ্রান্স, জার্মানি থেকে কিট আনানোর সিদ্ধান্ত হয়েছে। চিন থেকে কিট না আসায় এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

ইন্ডিয়ান কাউন্সিল অফ মেডিক্যাল রিসার্চ (আইসিএমআর) ৪ এপ্রিল ঘোষণা করেছিল, হটস্পটগুলোয় বড় মাপের র‍্যাপিড অ্যান্টিবডি টেস্ট করতে হবে, যাতে আরও সহজে ও দ্রুত করোনা আক্রান্তদের হদিস পাওয়া যায়। এই সিদ্ধান্তের পরে চিনকে ৭ লক্ষ ব়্যাপিট টেস্ট কিটের অর্ডার দেয় ভারত। মনে করা হয়েছিল ৮ এপ্রিলের মধ্যেই তা এসে পৌঁছবে। কিন্তু কার্গো বিমানের সমস্যার কারণে তা এসে পৌঁছয়নি প্রত্যাশিত সময়ের বেশ কিছুদিন পরেও। এই অবস্থাতেই বিকল্প হিসেবে দেশীয় সংস্থাগুলির কথা ভাবে মোদী সরকার। আইসিএমআর সূত্রের খবর, তাদের চাহিদা ৪৫ লক্ষ কিটের।

চিন থেকে কিট আমদানি করার সিদ্ধান্ত হয়েছিল যে সংস্থার মাধ্যমে, সেই চেন্নাইয়ের সংস্থা ত্রিভিত্রন হেল্থকেয়ারের চেয়ারম্যান জিএসকে ভেলু বলেন, “কার্গো প্লেন পর্যাপ্ত পরিমাণে না আসায় কিটগুলি আটকে রয়েছে। এই সপ্তাহের ভিতর বা তার পরের সপ্তাহে চলে আসবে।”

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা গোড়া থেকেই বলছে, শুধু লকডাউনে কাজ হবে না। লকডাউন করার পর আঘাত হানতে হবে ভাইরাসকে। তার একটাই উপায়। টেস্টিং টেস্টিং টেস্টিং। যত পরীক্ষা করবে, তত বেশি করে জানা যাবে কারা আক্রান্ত, কারা আক্রান্ত নন। আর কেউ আক্রান্ত হলেই তাঁকে আইসোলেশনে পাঠাতে হবে। যাতে সংক্রমণ আর ছড়াতে না পারে। সংক্রমণের শৃঙ্খলটা ভাঙা যায়। সে দিক থেকে আইসিএমআরের ব়্যাপিড টেস্টের সিদ্ধান্ত ইতিবাচক।

আইসিএমআর জানিয়েছিল, আরটি-পিসিআর পরীক্ষা যেহেতু সময় সাপেক্ষ ও খরচ সাপেক্ষ, তাই তার আগে করে নেওয়া ব়্যাপিড টেস্ট জরুরি। তার পরে আরটি-পিসিআরে যদি নেগেটিভ আসে, তাহলে নিশ্চিত হওয়া যায় তখনই। পজিটিভ এলে সর্বোচ্চ সাবধানতা নিতে হবে করোনা-গাইডলাইন মেনে। উপসর্গ যদি দেখা না যায় তেমন ভাবে, তাহলে প্রথম ব়্যাপিড টেস্টের পরে আরও দশ দিন অপেক্ষা করে আরও একটি ব়্যাপিড টেস্ট করতে হবে। সেক্ষেত্রে নেগেটিভ এলে চিন্তামুক্ত হওয়া যাবে। কিন্তু ফের যদি পজিটিভ আসে, তাহলে কোয়ারেন্টাইনের মেয়াদ বাড়াতে হবে আরও ১০ দিন।

কিন্তু এর কোনওটাই আগ্রাসী ভাবে শুরু করা যাচ্ছে না, যতক্ষণ না হাতে পর্যাপ্ত টেস্ট কিট এসে পৌঁছচ্ছে। সেই জায়গা থেকেই চিনে অর্ডার করা কিটগুলি এসে পৌঁছনো অবধি অপেক্ষা না করে দেশীয় সংস্থার দ্বারাই কিট বানানো শুরু হল। সঙ্গে নতুন অর্ডার পাঠানো হল আরও তিনটি দেশেও।

You might also like