Latest News

৭ বছরের দলিত মেয়ের পচাগলা দেহ উদ্ধার আখখেতে! ধর্ষণ করে খুন উত্তরপ্রদেশে

দ্য ওয়াল ব্যুরো: সাত বছরের মেয়েকে ধর্ষণ করে খুনের অভিযোগ উত্তরপ্রদেশে! চারদিন ধরে নিখোঁজ ছিল সে, অবশেষে দেহ উদ্ধার হল আখখেতে। দেহটি পচে-গলে গেছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। আজ, রবিবার পাওয়া ময়নাতদন্তের রিপোর্ট নিশ্চিত করেছে, তাকে ধর্ষণ করার পরে খুন করা হয়েছে।

পুলিশ জানিয়েছে, বুধবার প্রতিদিনের মতোই বাড়ির বাইরে খেলতে বেরিয়েছিল মোরাদাবাদের গ্রামের বাসিন্দা, ওই মেয়েটি। সন্ধে হয়ে যাওয়ার পরেও বাড়ি ফেরেনি সে। এদিক ওদিক খোঁজাখুঁজি করে পরিবার। কিন্তু কোথাও মেলেনি খোঁজ। রাত হয়ে গেলে থানায় গিয়ে নিখোঁজ ডায়রি দায়ের করেন তাঁরা।

অভিযোগ পাওয়ার পরেই তদন্তে নামে পুলিশ। দু’টি দল গঠন করে চলে তল্লাশি অভিযান। দু’দিন ধরে গোটা এলাকায় চিরুনি তল্লাশি চালিয়েও কোনও খোঁজ মেলেনি তার।

অবশেষে শুক্রবার রাতে পুলিশে খবর দেন এক কৃষক। তিনি জানান, আখখেতের পাশ দিয়ে যাওয়ার সময়ে পচা গন্ধ পেয়েছেন। ওই আখখেতটি মেয়েটির বাড়ি থেকে ২ কিলোমিটার দূরে। গন্ধের উৎস দেখতে গিয়ে একটি বাচ্চা মেয়ের দেহ দেখতে পান! সঙ্গে সঙ্গে গ্রামবাসীদের খবর দেন তিনি। তার পরে জানানো হয় পুলিশকে। এর পরেই পুলিশ গিয়ে দেহটি উদ্ধার করে, পরিবারের তরফে নিশ্চিত করা হয়, ওই সাত বছরের মেয়েটিরই এই মর্মান্তিক পরিণতি ঘটেছে।

প্রাথমিক তদন্তে পুলিশ অনুমান করে, চরম শারীরিক নির্যাতন চালানো হয়েছে একরত্তি মেয়েটির উপর। তার দেহে একাধিক আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। ধর্ষণ করা হয়েছে বলেও জানায় পুলিশ। দেহ পাঠানো হয় ময়নাতদন্তে। সেই রিপোর্টেও নিশ্চিত করা হয়েছে ধর্ষণ করে খুনের কথা।

দলিত পরিবারের মেয়ে ছিল মৃতা। বাবা আনাজ বিক্রি করে চালাতেন অভাবের সংসার। এমনটা যে ঘটে গেছে, তা যেন বিশ্বাসই করতে পারছেন না নাবালিকার মা। ঘটনায় এখনও কেউ গ্রেফতার হয়নি। অভিযুক্তদের খোঁজে তল্লাশি চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

You might also like