Latest News

পার্থ ‘মাস্টারমাইন্ড’ হলে মানিক ‘কিংপিন’! তৃণমূল বিধায়কের নামে চার্জশিট পেশ ইডির

দ্য ওয়াল ব্যুরো: প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগ-দুর্নীতি মামলায় (Primary Teacher Recruitment Scam) ধৃত মানিক ভট্টাচার্যের নামে সাপ্লিমেন্টারি চার্জশিট পেশ করল কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা ইডি তথা এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (Enforcement Directorate)। প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের প্রাক্তন সভাপতিকে গ্রেফতারের ৫৮ দিনের মাথায় তাঁর (Manik Bhattacharya) নামে প্রথম চার্জশিট জমা পড়ল আদালতে। বুধবার ব্যাঙ্কশাল আদালতে ১৫০ পাতার চার্জশিট জমা দিয়েছে ইডি।

সূত্রের খবর, এই চার্জশিটের পরতে পরতে আছে কীভাবে নিয়োগ দুর্নীতি মামলায় যুক্ত ছিলেন মানিক। কীভাবে কোটি কোটি টাকা নয়ছয় হয়েছে এই দুর্নীতিতে। এর আগে প্রাক্তন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের নামে যখন চার্জশিট পেশ করেছিল ইডি, সেখানে নাম ছিল মানিকের। ছিল মানিকের সঙ্গে পার্থর মেসেজের উল্লেখও।

এদিন আদালতে ইডি যে চার্জশিট দিয়েছে তাতে সেই একই কথার উল্লেখ আছে বলে সূত্রের খবর। ইডির মতে, এই দুর্নীতি মামলায় পার্থ চট্টোপাধ্যায় যদি ‘মাস্টারমাইন্ড’ হন তো মানিক ছিলেন ‘কিংপিন’। সেই বিষয়টাও চার্জশিটে উল্লেখ করা হয়েছে। তা ছাড়া পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের বান্ধবী অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের বাড়ি থেকে যে নগদ টাকা উদ্ধার হয়েছে তার সঙ্গেও মানিকের যোগ রয়েছে বলে দাবি করেছে ইডি।

চার্জশিটে আর কী কী উল্লেখ করেছে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা?

সূত্রের খবর, এই চার্জশিটে উল্লেখ আছে মানিক ভট্টাচার্যের স্ত্রী ও ছেলের নামও। বলা হয়েছে, লেনদেনের অধিকাংশটাই মানিকের স্ত্রী ও ছেলের মারফত হতো। উল্লেখ্য, এর আগে একই কথা আদালতে জানিয়েছিল ইডির আইনজীবী। সেইসময় কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার আইনজীবী জানিয়েছিলেন, মানিক ভট্টাচার্যের স্ত্রীর সঙ্গে মৃত্যুঞ্জয় চক্রবর্তী নামের একজনের জয়েন্ট অ্যাকাউন্ট রয়েছে। এই মৃত্যুঞ্জয় মারা গিয়েছেন ২০১৬ সালে। ওই অ্যাকাউন্টে কয়েক কোটি টাকা রয়েছে। সেই বিষয়টাও চার্জশিটে উল্লেখ করা হয়েছে বলে সূত্রের খবর।

শুধু তাই নয়, ডিএলএড কলেজে অফলাইনে ভর্তি করিয়ে দেওয়ার নামে কোটি কোটি টাকা তুলেছিলেন মানিক! এই বিষয়ে মানিক ঘনিষ্ঠ জাতীয় পুরস্কারপ্রাপ্ত শিক্ষক তাপস মণ্ডলকে একাধিকবার জেরা করে ইডি। এই চার্জশিটে তাপসের বয়ানও যুক্ত করা হয়েছে বলে খবর। এই অফলাইন ভর্তির ক্ষেত্রে নাম জড়িয়েছে মানিক পুত্র সৌভিক ভট্টাচার্যেরও।

যিনি ধেড়ে ইঁদুর চেনেন, তাঁকে তদন্তে ডাকা হোক, টুইট কুণালের

You might also like