Latest News

বারাসাতে ব্যাঙ্ক কর্মীর বেশে এটিএমে জালিয়াতি! হাতেনাতে ধরলেন ব্যবসায়ী

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ব্যাঙ্কের ই-কর্নারে (ATM) টাকা জমা করার সময় হঠাৎই যান্ত্রিক গোলযোগ দেখা দেয়। জনৈক গ্রাহক তাতেই বিভ্রান্ত হয়ে পড়েছিলেন। সেই সময় ব্যাঙ্ক কর্মীর পরিচয়ে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেয় এক যুবক। অভিযোগ সে আদৌ ব্যাঙ্ক কর্মী নয়। তার উদ্দেশ্য ছিল টাকা হাতিয়ে নেওয়া।

ঘটনাটি ঘটেছে বারাসাতে। স্থানীয় ব্যবসায়ী শিপন মজুমদার ৫০ হাজার টাকা জমা করবেন বলে বারাসাতের স্টেট ব্যাঙ্ক ই-কর্নারে আসেন। টাকা জমা করার সময় আচমকাই বিদ্যুৎ চলে যায় বলে জানিয়েছেন তিনি। সেই সময় ২৫ হাজার ৫০০ টাকা মেশিনের ভিতরে ঢুকে গেলেও বিদ্যুৎ বিভ্রাটের ফলে টাকা জমার প্রক্রিয়া সম্পূর্ণ হয়নি। উল্টে মেশিন থেকে বেরিয়ে আসা স্লিপে তাঁকে ব্যাঙ্কের শাখায় যোগাযোগ করতে বলা হয়। এই সময়‌ সাহায্য করতে এগিয়ে আসে এক যুবক। অভিযুক্তের নাম সুমন্ত ঘোষ।

লাদাখ সীমান্তে এখনও নিঃশ্বাস ফেলছে চিনের সেনা, পিছু হটবে না ভারতীয় বাহিনীও: সেনাপ্রধান

ওই ব্যবসায়ীর অভিযোগ যাবতীয় সমস্যা মিটিয়ে দেওয়ার কথা বলে যুবক। সেই সঙ্গে বাকি ২৪ হাজার ৫০০ টাকাও জমা করিয়ে দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দেয়। এই কারণে তাকে মধ্যমগ্রামের স্টেট ব্যাঙ্ক ই-কর্নারে নিয়ে যাওয়া হয়। সাময়িকভাবে বিভ্রান্ত হয়ে তিনি ওই যুবকের কথা মতো কাজ করেন। কিন্তু স্টেট ব্যাঙ্ক ই-কর্নারে গিয়ে ওই যুবক নিজের অ্যাকাউন্টে বাকি টাকা জমা করে বলে অভিযোগ। তৎক্ষণাৎ তাকে ধরে ফেলেন শিপনবাবু। এরপর তিনি ওই যুবককে নিয়ে এসে বারাসাত থানার হাতে তুলে দেন।

যেখানে এই ঘটনার সূত্রপাত সেই বারাসাত স্টেট ব্যাঙ্ক ই-কর্নারে নিরাপত্তারক্ষী আছেন। তাঁর দাবি যে সময় টিফিন ব্রেক হয়েছিল তখনই এই ঘটনা ঘটেছে। তিনি অবশ্য গোটা ঘটনায় গ্রাহকদেরই কাটগড়ায় তুলছেন। বারবার বোঝানো সত্ত্বেও গ্রাহকরা সতর্ক না হওয়ায় প্রতারকরা সুযোগ পেয়ে যাচ্ছেন বলে ওই নিরাপত্তারক্ষীর দাবি।

ব্যবসায়ীর লিখিত অভিযোগ পেয়ে পুলিশ অভিযুক্ত সুমন্ত ঘোষকে গ্রেফতার করেছে।

পড়ুন দ্য ওয়ালের সাহিত্য পত্রিকা ‘সুখপাঠ’

You might also like