Latest News

মেয়েকে আত্মহত্যার ‘অভিনয়’ করাচ্ছিল বাবা! সুইসাইড নোট লিখিয়ে শেষমেশ খুন নাবালিকা

দ্য ওয়াল ব্যুরো: কিছু আত্মীয়-স্বজনকে ‘শিক্ষা’ দিতে চেয়েছিল। তাই, ভুল বুঝিয়ে ওই আত্মীয়দের (relatives) নামে সুইসাইড নোট লিখিয়ে আত্মহত্যার (suicide) অভিনয় করতে রাজি করিয়েছিল নিজের কিশোরী মেয়েকে (minor daughter)। তারপর মেয়ের বিশ্বাসের সুযোগ নিয়ে সেই অভিনয় চলাকালীন মেয়েকে খুন করল (kills) এক ব্যক্তি।

ঘটনাটি ঘটেছে গত ৬ নভেম্বর মুম্বাইয়ের নাগপুরের (Nagpur) কালামনা এলাকায়। পুলিশ জানিয়েছে, দিন কয়েক আগেই অভিযুক্ত থানায় ফোন করে জানায়, সে কাজের জন্য বাইরে বেরিয়েছিল। বাড়ি ফিরে আসার পরে দেখে, পাখার সঙ্গে দড়ি বেঁধে আত্মঘাতী হয়েছে তার ১৬ বছর বয়সি মেয়ে। খবর পেয়ে এই ঘটনাস্থলে গিয়ে হাজির হয় পুলিশ। দেখা যায়, নিজের সৎ মা, কাকা, কাকিমা এবং দাদু-ঠাকুমার নামে ৫টি সুইসাইড নোট লিখে রেখে আত্মঘাতী হয়েছে ওই কিশোরী। প্রাথমিক তদন্তে ওই পাঁচজনের বিরুদ্ধে আত্মহত্যায় প্ররোচনা দেওয়ার অভিযোগ দায়ের করে পুলিশ।

পরে একটি বিশেষ ঘটনায় খটকা লাগে তদন্তকারীদের। মৃতা কিশোরীর বাবার ফোনে একটি একটি ছবি দেখতে পান তদন্তকারীরা, যে ছবিতে দেখা যায়, আত্মহত্যা করার অভিনয় করছে ওই নাবালিকা। ছবি দেখার পরেই নাবালিকার বাবাকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করে পুলিশ। জেরার মুখে ভেঙে পড়ে অভিযুক্ত জানায়, সে নিজেই খুন করেছে মেয়েকে।

পুলিশ জানিয়েছে, মেয়েকে দিয়ে পরিবারের পাঁচজনের বিরুদ্ধে আত্মহত্যার নোট লেখানোর পর মেয়েকে সে বলে বিছানার উপর টুল রেখে তার উপর দাঁড়িয়ে পাখার সঙ্গে দড়ি বেঁধে আত্মহত্যার অভিনয় করতে। মেয়ে তা করতে রাজি হলে ঘটনার ছবি তুলে রাখে অভিযুক্ত। এরপরই লাথি মেরে টুলটি সরিয়ে দেয় সে। ঘটনাস্থলেই গলায় ফাঁস লেগে মৃত্যু হয় নাবালিকার। এরপরই বাড়ি থেকে বেরিয়ে যায় অভিযুক্ত। কিছুক্ষণ পর বাড়িতে ফিরে পুলিশকে ফোন করে সে।

পুলিশ আরো জানিয়েছে, অভিযুক্তের প্রথম পক্ষে স্ত্রী ২০১৬ সালে আত্মহত্যা করেছিলেন। এরপর দ্বিতীয়বার বিয়ে করে অভিযুক্ত। কিন্তু তার দ্বিতীয় পক্ষের স্ত্রীও পালিয়ে গেছেন। কী কারণে ওই ব্যক্তি নিজের মেয়েকে খুন করল তা এখনও স্পষ্ট নয়। বিষয়টি নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

ঠিক যেন সিনেমা! জানলা দিয়ে চিরকুট ছুড়ে বিপদ থেকে বাঁচলেন বানারহাটের গৃহবধূ, অভিযুক্ত স্বামী-শাশুড়ি

You might also like