Latest News

খুন হলেও, আমার পর কে লেখা আছে নাম: মমতা  

দ্য ওয়াল ব্যুরো: মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের পর তৃণমূল কংগ্রেসের সর্বাধিনায়ক হবেন কে? অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়? নাকি অন্য কোনও নেতা?

শুধু রাজনীতির অলিন্দ নয়, এ প্রশ্ন রয়েছে তৃণমূলের ভিতরেও। সেই রহস্য যদিও ফাঁস করলেন না মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, তবে এই প্রথম বার তিনি জানিয়ে দিলেন, তাঁর উত্তরাধিকারী কে হবেন তা তিনি উইল করে রেখেছেন।

শুক্রবার সন্ধ্যায় চব্বিশ ঘণ্টা সংবাদ চ্যানেলে একটি লম্বা সাক্ষাৎকার দেন মমতা। প্রশ্নোত্তর পর্বে তাঁকে একটি ভিডিও ফুটেজ দেখানো হয়। তাতে দেখা যায় দার্জিলিং সফরে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রী গাড়ি থেকে নেমে পড়ে সাধারণ মানুষের সঙ্গে কথা বলছেন। তাঁকে ঘিরে রয়েছেন প্রচুর মানুষ। ওই ফুটেজটি দেখানোর পর মমতাকে প্রশ্ন করা হয়, আপনি যে এমন দুম দাম গাড়ি থেকে নেমে পড়েন, নিরাপত্তার ব্যাপারটা ভাবেন না?

তারই উত্তর দিতে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, মানুষের মধ্যে থেকেই আমি বরাবর রাজনীতি করেছি। সেই সঙ্গে জানান,“প্রশাসনের কাছে খবর আছে একটি রাজনৈতিক দল, যার নাম আমি ভদ্রতার খাতিরে বলছি না তারা আমাকে খুনের সুপারি দিয়েছে। আমরা খোঁজ খবর নিচ্ছি।“ তাঁর কথায়, “এও জানতে পেরেছি, আমার বাড়ির লোকেশনও দেখে গেছে তারা। কিন্তু মনে রাখবেন মমতা ব্যানার্জিকে শেষ করে তৃণমূলকে শেষ করা যাবে না। আমার অবর্তমানে কে দল চালাবে তা লিখে রাখা আছে।“

তাঁকে প্রশ্ন করা হয়, রাজনৈতিক উইল করা আছে? জবাবে মমতা বলেন, “হ্যাঁ, রাজনৈতিক উইল করা রয়েছে।”

সাক্ষাৎকারে তার খানিকক্ষণ আগেই অবশ্য উত্তরাধিকার সংক্রান্ত প্রশ্ন এড়িয়ে গিয়েছিলেন তৃণমূলনেত্রী। তখন জবাবে বলেছিলেন, “শুভেন্দু গ্রামে গ্রামে ঘুরছে, ববি ঘুরছে, অভিষেক পরিশ্রম করছে। বক্সিদাও (সুব্রত) অনেক কাজ করছে। এমনকী সাধন পান্ডেও কোথায় রয়েছে তা আমি জানি। উত্তরাধিকারী মানুষ ঠিক করবে। মমতা তখন এও বলেন, নেতা গাছ থেকে পড়ে না। নেতা তৈরী করতে হয়।” কিন্তু শেষমেশ বুঝিয়ে দেন, উত্তরাধিকারীর বিষয়টি তিনি ঠিক করে ফেলেছেন। তাঁর পর কে দল চালাবেন তা লিখে রাখা আছে।

 

You might also like