Latest News

মমতার সাফ নির্দেশ, পাইলট কার নিয়ে কোনও মন্ত্রী কলকাতায় ঢুকতে পারবেন না

রফিকুল জামাদার

রাজ্যের কোনও মন্ত্রী আজ বৃহস্পতিবার থেকে কলকাতায় (Kolkata) পাইলট কার (Pilot Car) নিয়ে ঘুরতে পারবেন না। এদিন রাজ্য মন্ত্রিসভার বৈঠক ছিল। সেই বৈঠকে এ কথা পষ্টাপষ্টি জানিয়ে দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)।

একদা বাম জমানায় বহু মন্ত্রী পাইলট কার ব্যবহার করতেন না। কলকাতায় তো নয়ই, জেলা সফরেও না। কেন্দ্রে রেলমন্ত্রী থাকাকালীন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেও কেউ কখনও দিল্লিতে পাইলট কার ব্যবহার করতে দেখেনি। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁর গাড়িতে লালবাতিও কখনও লাগাতে দেননি। অথচ তাঁর মন্ত্রিসভারই একাংশ মন্ত্রীর লালবাতি জ্বালিয়ে ঘোরা বা পাড়ার মধ্যেও পাইলট কার ব্যবহার করার বাতিক রয়েছে।

মুখ্যমন্ত্রী কিছুদিন আগেও ঘরোয়া ভাবে দলের নেতা মন্ত্রীদের বলেছিলেন, এ ভাবে লালবাতি, নীলবাতি লাগিয়ে ঘোরাঘুরি সাধারণ মানুষ পছন্দ করেন না। এতে আমজনতার সঙ্গে বিচ্ছিন্নতা তৈরি হয়। বরং নেতা মন্ত্রীদের উচিত মাঝেমধ্যে চায়ের দোকানে গিয়ে বসা। মানুষের বাড়িতে খোঁজখবর নেওয়া।

পর্যবেক্ষকদের অনেকের মতে, পার্থ-অনুব্রত কাণ্ডে তৃণমূল সম্পর্কে যে নেতিবাচক ধারণা অনেকের তৈরি হয়েছে, তা কাটাতেই এ ধরনের পদক্ষেপ করলেন মুখ্যমন্ত্রী।

তবে সরকারের এই নির্দেশ নিয়ে পাল্টা কটাক্ষ করেছেন বাম নেতা সুজন চক্রবর্তী। তিনি বলেন, সরকারের মন্ত্রীরা তো পরের কথা। এক জন সাংসদ রয়েছেন। তিনি এয়ারপোর্ট থেকে রওনা হলে তাঁর পাইলট কার ও এসকর্ট পার্টি মা ফ্লাইওভারে গাড়ি চলাচল বন্ধ করে দেয়। সেভেন পয়েন্টস ক্রসিংয়ে গাড়ি আটকে দেয় ট্রাফিক পুলিশ। তাঁর কী হবে!

আরও পড়ুন: অনুব্রতর মেয়ের টেট সার্টিফিকেট পেশের নির্দেশ প্রত্যাহার করে নিলেন বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়

You might also like