Latest News

সংসদীয় দলের নেত্রী হলেন মমতা, সর্বভারতীয় রাজনীতিতে আরও সক্রিয় উপস্থিতি

দ্য ওয়াল ব্যুরো: পার্লামেন্টে সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেসের চেয়ারপার্সন হলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শুক্রবার ডেরেক ও’ব্রায়েন এই সংবাদ জানিয়েছেন। সামনের সপ্তাহেই দিল্লি যাচ্ছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তার আগে এই নির্বাচন তাৎপর্যপূর্ণ।

ডেরেক ও’ব্রায়েন এদিন জানিয়েছেন, আমাদের লোকসভা এবং রাজ্যসভার সাংসদরা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেসের চেয়ারপার্সন হিসেবে নির্বাচিত করেছেন। অত্যন্ত আনন্দের সঙ্গে আমি এই খবর জানাচ্ছি।

এর আগে পার্লামেন্টে দলের চেয়ারপার্সন ছিলেন তৃণমূল নেতা ও সাংসদ সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর জায়গাতেই দায়িত্ব নিচ্ছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী। সদস্য না হয়েও সংসদে দলকে নেতৃত্ব দেওয়ার এই নজির অবশ্য নতুন নয়। এর আগে ১৯৯৮ সালে সনিয়া গান্ধীও কংগ্রেসের পার্লামেন্ট নেত্রী হিসেবে মনোনীত হয়েছিলেন। একই পথে দেখা গেল মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেও।

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় একুশের ভোটে নন্দীগ্রাম থেকে হেরে গিয়েছেন। তা নিয়ে ভোটের ফলাফলের পর থেকেই সরব বিরোধীরা। বিধানসভার সদস্য না হয়েও মুখ্যমন্ত্রী হয়েছেন তিনি, এ নিয়ে অনবরত খোঁচা দেওয়া হয়ে থাকে। এবার কার্যত একই রকম ঘটনা হল পার্লামেন্টেও। সদস্য না হয়েও দলকে নেতৃত্ব দেবেন তিনি।

এই নির্বাচনের পর সর্বভারতীয় রাজনীতিতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের গুরুত্ব আরও বাড়বে, সন্দেহ নেই। দিল্লি যাতায়াতও বাড়বে। ২০২৪ সালের লোকসভা নির্বাচনকে মাথায় রেখেই যে একের পর এক ঘুঁটির চাল দিয়ে চলেছে তৃণমূল, তা স্পষ্ট। এমনিতেই সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই সঙ্গে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের আজকের এই নির্বাচন জাতীয় রাজনীতিতে দলের গুরুত্ব আরও বাড়াবে বলেই মনে করছেন পর্যবেক্ষক মহলের একাংশ।

You might also like