Latest News

মোদীর মন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করবেন, ফোন করেও সাক্ষাতের সময়ই পাচ্ছেন না মমতার মন্ত্রী

রফিকুল জামাদার

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi) বলেন, তাঁর সরকার সহযোগিতামূলক যুক্তরাষ্ট্রীয় ব্যবস্থায় চলে! অথচ ঘটনা হল, তাঁর মন্ত্রিসভারই প্রবীণ মন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করতে চেয়ে সাক্ষাতের সময়ই পাচ্ছেন না মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) মন্ত্রিসভার বর্ষীয়াণ মন্ত্রী।

বিষয়টা খুবই সাধারণ। পঞ্চায়েত দফতরের বহু হাজার কোটি টাকা বকেয়া পাওনা রয়েছে কেন্দ্রের থেকে। সেই টাকা আদায়ের জন্য কেন্দ্রীয় গ্রামোন্নয়ন মন্ত্রী গিরিরাজ সিংয়ের সঙ্গে দিল্লিতে দেখা করতে চান বাংলার পঞ্চায়েত ও গ্রামোন্নয়ন মন্ত্রী প্রদীপ মজুমদার। কিন্তু তিন দিন ধরে ফোন করে গিরিরাজের সঙ্গে কথা পর্যন্ত বলতে পারেননি প্রদীপবাবু। কারণ, পঞ্চায়েত দফতরের আমলাদের অভিযোগ, গিরিরাজের অতিরিক্ত ব্যক্তিগত সহায়ক পঙ্কজ কুমার কোনও ভাবেই ফোনে ধরাচ্ছেন না গিরিরাজকে। কখনও বলছেন, আধ ঘণ্টা মন্ত্রী ফ্রি হলে কল ব্যাক করছি, কখনও বলছেন কাল করুন। তার পর এখন ফোন করলেই কেটে দিচ্ছেন কখনওবা সুইচ অফ থাকছে বলে অভিযোগ।

Image - মোদীর মন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করবেন, ফোন করেও সাক্ষাতের সময়ই পাচ্ছেন না মমতার মন্ত্রী
প্রদীপ মজুমদার, পঞ্চায়েত মন্ত্রী

ঘটনা হল, দিল্লিতে গিয়ে কেন্দ্রীয় গ্রামোন্নয়ন মন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করার জন্য প্রদীপ মজুমদারকে নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ফলে প্রদীপবাবু এখন ফ্যাঁসাদে পড়েছেন। তবে গ্রামোন্নয়ন মন্ত্রকের সঙ্গে নবান্নের সমন্বয়ের অতীত কিন্তু বেশ সমধুর ছিল। সুব্রত মুখোপাধ্যায় যখন পঞ্চায়েত মন্ত্রী ছিলেন, তখন মনমোহন জমানায় কেন্দ্রে গ্রামোন্নয়ন মন্ত্রী ছিলেন জয়রাম রমেশ। আকছার দিল্লিতে গিয়ে জয়রামের সঙ্গে দেখা করতেন সুব্রতবাবু। জয়রামও কলকাতায় আসতেন। তা ছাড়া দু’জনের বন্ধু সম্পর্ক এমনই ছিল মাঝে মধ্যেই দরকারে অদরকারে কথা হত দু’জনের। সে সময়েও কেন্দ্রের থেকে রাজ্যের বকেয়া পাওনা থাকত। সেই টাকা পেতেও নবান্নর বিশেষ বেগ পেতে হত না।

কংগ্রেসের শীর্ষ পদের লড়াই থেকে সনিয়া, রাহুলরা কেন সরে দাঁড়ালেন

You might also like