Latest News

আমাদের এই ২১ জুলাই অনেকটা বাংলাদেশের ভাষা আন্দোলনের ২১ ফেব্রুয়ারির মতো: মমতা

দ্য ওয়াল ব্যুরো: পাকিস্তানের রাষ্ট্রভাষা উর্দুকে পূর্ব পাকিস্তানের বাংলাভাষী মানুষের উপর চাপিয়ে দিয়েছিল সে দেশের সরকার। দেশভাগের পর সদ্য গঠিত পাকিস্তানে সরকারের সেই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে গর্জে উঠেছিল পূর্ব পাকিস্তানের বাঙালিরা। উর্দু চাপিয়ে দেওয়ার প্রতিবাদে রাজপথে নেমে আসা জনতাকে ছত্রভঙ্গ করতে পুলিশ ও মিলিটারি গুলি চালায়। দিনটা ছিল ১৯৫২-র ২১ ফেব্রুয়ারি। ওই দিনটিকে পরে রাষ্ট্রসংঘ আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের স্বীকৃতি দিয়েছে।

তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) মনে করেন, ১৯৯৩ সালের ২১ জুলাই তৎকালীন বামফ্রন্ট সরকারের বিরুদ্ধে যুব কংগ্রেসের মহাকরণ অভিযান আন্দোলনের সঙ্গে বাংলাদেশে ভাষা আন্দোলনের ২১ ফেব্রুয়ারির মিল আছে।

দলের মুখপত্র জাগোবাংলায় ২১ জুলাইয়ের স্মৃতিচারণায় একথা লিখেছেন তৃণমূল নেত্রী। তিনি সেই আন্দোলনের কারণ ব্যাখ্যা করেন লেখায়। লিখেছেন, ১৯৯৩ সালের ২১ জুলাইয়ের আগে ছাপ্পা ভোট, ভুয়ো ভোটে আগেই ভোটের ফলাফল ঠিক হয়ে যেত। আমরা সেদিন বলেছিলাম, নো আই কার্ড নো ভোট। সচিত্র পরিচয়পত্র চাই। দেশে প্রথম আমরাই আওয়াজ তুলেছিলাম। শেষে নির্বাচন কমিশন এটা মেনে নিয়েছিল। ২১ জুলাই আমাদের শহিদদের প্রাণের বিনিময়ে এল ভোটারদের সচিত্র পরিচয়পত্র। আর ২১ জুলাই হয়ে থাকল গণতান্ত্রিক আন্দোলনের ইতিহাসে নিরপরাধ রাজনৈতিক কর্মীদের উপর আক্রমণের এক কালোদিন। যাঁরা জীবন দিয়েছিল, তাঁরা অমর হয়ে থাকল।

মাইতিদা না বাঁচালে আমাকে সেদিনই গুলি করে খুন করত: মমতা

You might also like