Latest News

ছেলেদের সঙ্গে কথা কেন! গার্লস হস্টেলে ঢুকে ছাত্রীকে বেধড়ক পেটাল ব্যাঙ্ক ম্যানেজার

ছাত্রীদের অভিযোগ, ওই ব্যক্তি মাঝেমাঝেই তাঁদের নানাভাবে উত্ত্যক্ত করতেন।

দ্য ওয়াল ব্যুরো: ছেলেদের সঙ্গে কথা বলার ‘অপরাধে’ গার্লস হস্টেলের ভিতরে ঢুকে এমবিএ পড়ুয়া ছাত্রীকে বেধড়ক পেটানোর অভিযোগ উঠল এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে! শনিবার ইন্দোরের ভানওয়ার কুয়ান এলাকার এই ঘটনায় রবিবার সকালে গ্রেফতার করা হয়েছে অভিযুক্ত অমরজিৎ সিংকে। ৪৫ বছরের ওই ব্যক্তি পেশায় বেসরকারি ব্যাঙ্কের ম্যানেজার বলে জানিয়েছে পুলিশ।

হস্টেলের ছাত্রীদের অভিযোগ, ওই ব্যক্তি মাঝেমাঝেই তাঁদের নানাভাবে উত্ত্যক্ত করতেন। কিন্তু তাই বলে যে তিনি হস্টেলের ভিতরে ঢুকে পড়ে ছাত্রীকে নিগ্রহ করবেন, তা স্বপ্নেও ভাবা যায়নি।

কী ঘটেছিল হস্টেলে?

আবাসিকদের কথায়, শনিবার সন্ধেয় কয়েক জন ছাত্রীর সঙ্গে তাঁদের বন্ধুরা দেখা করতে এসেছিলেন। সকলেই পুরুষ বন্ধু। হস্টেলের গেটের বাইরে দাঁড়িয়ে তাঁদের সঙ্গে কথা বলছিলেন ছাত্রীরা। ওই ব্যাঙ্ক ম্যানেজার আচমকাই এসে আক্রমণ করেন সেখানে। চিৎকার করে বলেন, যে তিনি এই অনাচার সহ্য করতে পারছেন না। তার পরেই ছাত্রীদের মারধর করতে শুরু করেন তিনি। ছাত্রীরা ভিতরে ঢুকে গেলে তিনিও ধাওয়া করে হস্টেলের ভিতরে ঢোকেন।

অভিযোগ, ছাত্রীদের উপর চিৎকার করে অকথ্য গালাগালি দিতে দিতে মারতে শুরু করেন এক ছাত্রীকে। ঘটনার সিসিটিভি ফুটেজে দেখা গেছে, এক মহিলাকে টেনে-হিঁচড়ে মারধর করছেন তিনি। ভিডিও সামনে আসতেই পুলিশ ব্যবস্থা নিয়েছে অভিযুক্ত অমরজিতের বিরুদ্ধে।

দেখুন ভিডিও।

তদন্তে জানা গেছে, ঘটনার দিন সকালেই ওই হস্টেলের ছাত্রীদের সঙ্গে তর্কাতর্কি হয়েছিল অভিযুক্ত অমরজিতের মায়ের। তিনি আপত্তি তুলেছিলেন ওই ছাত্রীদের পুরুষবন্ধুদের সঙ্গে মেলামেশা ও কথা বলা নিয়ে। অভিযোগ, সে সমনে নাকি অমরজিতের বৃদ্ধা মাকে ধাক্কা মেরে বসেন কোনও এক ছাত্রী।

এই ঘটনার পরে সন্ধেবেলা ফের ছাত্রীদের ছেলেদের সঙ্গে কথা বলতে দেখে রেগে যান বলে দাবি করেন অমরজিৎ। যদিও ছাত্রীদের পাল্টা দাবি, এটা প্রথম নয়, এর আগেও ছাত্রীদের নানা ভাবে উত্ত্যক্ত করেছেন অমরজিৎ। তাদের চলাফেরা নিয়ে বারবার নানারকম সমস্যাজনক মন্তব্য করেছেন, কটূক্তি করেছেন। কিন্তু এই বার সব সীমা ছাড়িয়ে গেছে।

You might also like