Latest News

বরের গলায় মালা দিতেই হার্ট অ্যাটাক! মর্মান্তিক মৃত্যু কনের, বিয়ের আসর বদলে গেল শ্রাদ্ধবাসরে

দ্য ওয়াল ব্যুরো: কথায় বলে, জন্ম-মৃত্যু-বিয়ে, তিন বিধাতা নিয়ে। অর্থাৎ কিনা, জন্ম, মৃত্যু এবং বিয়ে, এই তিনটি জিনিসই বিধির বিধান, যা খণ্ডন করার ক্ষমতা মানুষের নেই। তবে বিয়ের দিনই যে মৃত্যুর কালো ছায়া নেমে আসবে, তা কি কেউ দুঃস্বপ্নেও ভাবতে পেরেছিল! লখনউতে একটি বিয়ের অনুষ্ঠানে মালাবদল চলাকালীনই হৃদরোগে আক্রান্ত (cardiac arrest) হয়ে মৃত্যু হল কনের (bride dies during Jaimala ceremony)।

মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার উত্তরপ্রদেশের লখনউয়ের (Lucknow) কাছে ভাদওয়ানা গ্রামে। সেদিন ওই গ্রামের বাসিন্দা শিবাঙ্গী নামে বছর কুড়ির এক তরুণীর সঙ্গে বিয়ে হচ্ছিল বিবেক নামে এক যুবকের। বিয়ের অনুষ্ঠান শুরু হয়ে গিয়েছিল। মঞ্চে উঠে বরের গলায় মালাও পরিয়ে দেন শিবাঙ্গী। পরমুহূর্তেই আচমকা হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মঞ্চের উপরেই লুটিয়ে পড়েন তিনি।

উপস্থিত অতিথি-অভ্যাগত এবং বর-কনের আত্মীয়রা হতবাক হয়ে যায়। প্রাথমিক হতভম্ব অবস্থা কাটিয়ে ওঠার পর শিবাঙ্গীকে নিয়ে হাসপাতালে ছোটেন তাঁর পরিজনরা। ট্রমা কেয়ার সেন্টারে রেফার করা হয় তরুণীকে। কিন্তু সেখানে নিয়ে যাওয়ার পথে রাস্তাতেই মৃত্যু হয় তাঁর।

মালিহাবাদ থানার স্টেশন হাউস অফিসার সুভাষচন্দ্র সরোজ জানিয়েছেন, তাঁরা সোশ্যাল মিডিয়া থেকে এই মর্মান্তিক ঘটনার কথা জানতে পারেন। ইতিমধ্যেই গ্রামে তদন্তকারীদের একটি দল পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

প্রসঙ্গত, গত বৃহস্পতিবার মধ্যপ্রদেশের একটি মন্দিরে পুজো করার সময় হার্ট অ্যাটাকে মৃত্যু হয়েছে এক ব্যক্তির। রাজেশ নামে ওই ব্যক্তি একটি ওষুধের দোকানের মালিক ছিলেন। প্রতি বৃহস্পতিবারই তিনি এলাকার একটি সাইবাবার মন্দিরে পুজো দিতে আসতেন বলে জানা গেছে। বৃহস্পতিবার বিগ্রহকে পরিক্রমা করার পর প্রার্থনা করার জন্য মন্দিরের মেঝেতে বসেন তিনি। তারপর ওই অবস্থাতেই হার্ট অ্যাটাকে মৃত্যু হয় তাঁর।

প্রার্থনা শুনলেন না ঈশ্বর! পুজোয় বসেই হার্ট অ্যাটাক, আর উঠলেন না ভক্ত

You might also like