Latest News

Lok Sabha: সংসদে সরব ৪৫৫ বার, ১২৯০ চিঠি, ১১০৪ ফেসবুক পোস্ট, ‘রিপোর্ট কার্ড’ ব্যতিক্রমী সাংসদের

দ্য ওয়াল ব্যুরো: নরেন্দ্র মোদীর দ্বিতীয় সরকারের তিন বছর পূর্ণ হল হালে। সরকারের জন্মদিন উপলক্ষ্যে সরকারি কাজের খতিয়ান পেশ করছে কেন্দ্রের বিভিন্ন মন্ত্রক। (Lok Sabha)

গত বছর এপ্রিল-মে মাসে বিধানসভা নির্বাচন হয় পশ্চিমবঙ্গ, অসম, তামিলনাড়ু, কেরল ও পুদুচেরিতে। ওই রাজ্যগুলিতেও বর্তমান সরকার তাদের বর্ষপূর্তি পালন করছে। রাজ্য সরকারের দফতরগুলি কাজের অগ্রগতি, সাফল্য তুলে ধরছে জন-দরবারে।

চলতি মাসেই তিন বছর পূর্ণ হয়েছে বর্তমান লোকসভারও (Lok Sabha)। লোকসভা ও রাজ্যসভার সচিবালয় নিয়মিত প্রকাশ করে তাদের কাজের খতিয়ান। সাংসদেরা কতজন কতগুলি প্রশ্ন উত্থাপন করেছে, কতগুলি প্রশ্নের জবাব দিয়েছে সরকার, আইন পাশ হয়েছে কতগুলি, কত বিল সাংসদদের কমিটির বিবেচনাধীন, ইত্যাদি নানা বিষয়ে তথ্য রয়েছে সেখানে।

কিন্তু লোকসভার ৫৪৩জন সাংসদের কে কী ভূমিকা পালন করেছেন এই তিন বছরে? লোকসভা বা রাজ্যসভার সচিবালয় সাংসদদের নিয়ে ব্যক্তিগত তথ্য নিজে থেকে প্রকাশ করে না। যদিও লিখিতভাবে জানতে চাইলে জানায়।

Image - Lok Sabha: সংসদে সরব ৪৫৫ বার, ১২৯০ চিঠি, ১১০৪ ফেসবুক পোস্ট, ‘রিপোর্ট কার্ড’ ব্যতিক্রমী সাংসদের

তবে একজন সাংসদ এই ব্যাপারে ভিন্ন রাস্তায় হেঁটেছেন। তিনি নিজেই সাংসদ হিসাবে এই তিন বছরে তাঁর কাজের খতিয়ান প্রকাশ করেছেন। যেমন, তিনি জানিয়েছেন, শুধু সংসদে দাঁড়িয়ে ৪৫৫ বার বিভিন্ন ইস্যুতে সরব হয়েছেন। তারমধ্যে বিতর্কে অংশ নিয়েছেন ৩০৮। এছাড়া, প্রশ্ন করেছেন অসংখ্য। তাঁর আরও দাবি, এই তিন বছরে সংসদ এলাকার বাসিন্দাদের স্বার্থে কেন্দ্র এবং রাজ্য সরকারের মন্ত্রী, সচিব, অফিসারদের ১২৯০টি চিঠি লিখেছেন। এছাড়া, ২০১৯-এর লোকসভা ভোটের পর থেকে এ বছর ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত ২১১টি জনসভায় ভাষণ দিয়েছেন তিনি।

শুধু তাই নয়, প্রতি সোমবার রাতে ফেসবুক লাইভে এলাকার বাসিন্দাদের সঙ্গে এক ঘণ্টার জন্য মিলিত হন এই সাংসদ। তাদের সমস্যা, প্রশ্ন শোনেন। জবাব দেন। সাংসদ জানিয়েছেন, ২০১৯-এর ২৩ মে সাংসদ হিসাবে শপথ নেওয়ার দিন থেকে এ পর্যন্ত তিনি জনস্বার্থে ১১০৪টি ফেসবুক পোস্ট করেছেন। সেগুলি ৭৭০০টি শেয়ার হয়েছে। আরও জানিয়েছেন, এই তিন বছরে সাংসদ হিসাবে তাঁর বিভিন্ন ভূমিকার কথা ৭৩৫টি খবরে স্থান পেয়েছে।

ব্যতিক্রমী সাংসদের তিন বছরের এই রিপোর্ট কার্ড হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপ, ফেসবুক, টুইটার মারফৎ ইতিমধ্যেই পৌঁছে গিয়েছে তাঁর নির্বাচনী এলাকার বাসিন্দাদের কাছে।

তিনি উত্তরপ্রদেশের বিজনোরের বহুজন সমাজবাদী পার্টির সাংসদ মালুক নাগর (Malook Nagar)। ৫৬ বছর বয়সি নাগর পেশায় ব্যবসায়ী। ২০১৯-এ প্রথমবার সাংসদ হয়েছেন। বর্তমান লোকসভায় বিএসপি-র ১০জন সাংসদ রয়েছেন। তবে মালুক নাগরের মতো জনতার দরবারে এভাবে সাংসদ হিসাবে কাজের খতিয়ান পেশের নজির শুধু তাঁর দলের কেন, অন্য দলেও নেই। আজ, সোমবারও তিনি বর্ষপূর্তি উপলক্ষে রাতে ফেসবুক লাইভে আসবেন।

দিল্লির সঙ্গে টোকিওর সম্পর্কের আরও উন্নতি হবে, জাপানের সংবাদপত্রে লিখেছেন মোদী

You might also like