Latest News

শ্রীনগরে এনকাউন্টারে খতম পাকিস্তানি লস্কর জঙ্গি, ২০১৬য় ঢুকেছিল

দ্য ওয়াল ব্যুরো: দুই পুলিশকর্মীর হত্যাসহ একাধিক সন্ত্রাস মামলায় (terror cases) ওয়ান্টেড (wanted) পাকিস্তানি লস্কর-ই-তৈবা জঙ্গি (pakistani) (lashkar terrorist) রবিবার হারওয়ান এলাকায় নিরাপত্তাবাহিনীর সঙ্গে এনকাউন্টারে (encounter)  গুলিতে খতম হল। এক জঙ্গির আত্মগোপন  করে থাকার সুনির্দিষ্ট খবরের ভিত্তিতে শ্রীনগরের (kashmir) থিদ হারওয়ানে এলাকা কর্ডন করে তল্লাশি শুরু করে নিরাপত্তাবাহিনী।

জনৈক পুলিশ মুখপাত্রের বক্তব্য অনুসারে, আজ সকালের তল্লাশি অভিযানে ওই সন্ত্রাসবাদীর এলাকায় লুকিয়ে থাকার স্পষ্ট প্রমাণ মেলার পর তাকে ধরা দেওয়ার পর্যাপ্ত সময়, সুযোগ  দেওয়া হয়। কিন্তু পরিবর্তে সে যৌথ তল্লাশি দলকে নিশানা করেই নির্বিচারে গুলি চালায়। পাল্টা নিরাপত্তাবাহিনী গুলি চালালে শুরু হয় এনকাউন্টার। গুলিতে খতম হয় সাফিউল্লা ওরফে আবু খালিদ ওরফে শাহওয়াজ নামে পাকিস্তানের করাচির বাসিন্দা ওই সন্ত্রাসবাদী। জনৈক পুলিশের মুখপাত্র জানান, এনকাউন্টারস্থল থেকে তার দেহ মিলেছে। পুলিশের নথি অনুসারে সে যুক্ত ছিল লস্করের সঙ্গে। ২০১৬য় বান্দিপোরা সেক্টর হয়ে সে ঢোকে, পাকিস্তানে বসে থাকা লস্কর কমান্ডারদের নির্দেশে পুলওয়ামা, শ্রীনগর, গান্দেরবল, বদগামে সন্ত্রাসবাদী কার্যকলাপ চাঙ্গা করতে শ্রীনগরে চলে আসে। শ্রীনগরে লস্করের গ্রুপ কমান্ডার হিসাবে কাজ  করছিল সে।

সংঘর্ষস্থল থেকে আপত্তিকর সামগ্রী, অস্ত্রশস্ত্র যেমন একে ৪৭ রাইফেল, তিনটি ম্যাগাজিন ও একটি গ্রেনেড পাওয়া গিয়েছে।

কাশ্মীর পুলিশের আইজি বিজয় কুমার নিজেদের কোনও ক্ষতি না করে সফল অভিযান চালিয়ে সন্ত্রাসবাদী খতম  করায় যৌথ বাহিনীকে অভিনন্দন জানান। সইফুল্লাকে নিয়ে শ্রীনগরে এক মাসের মধ্যে তিন পাকিস্তানি সন্ত্রাসবাদী নিহত হল বলে জানান তিনি।

 

You might also like