Latest News

‘ওওওও বাবুল, ভাগ্যিস গো হারা হেরেছ!’ কুণালের খোঁচা রাজনীতি ত্যাগী সাংসদকে

দ্য ওয়াল ব্যুরো: বাংলার ভোটের প্রচারে এসে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উদ্দেশে নরেন্দ্র মোদীর ‘দিদি… ওওওও দিদি’ টিপ্পনি মনে পড়ে? কার্যত সেই সুরেই সাংসদ পদ রেখে দিয়ে রাজনীতি ত্যাগী বাবুল সুপ্রিয়কে কটাক্ষ করলেন তৃণমূল নেতা কুণাল ঘোষ।

দুদিন আগে দীর্ঘ ফেসবুক পোস্টে রাজনীতিকে আলবিদা বলেছিলেন সদ্য প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী বাবুল সুপ্রিয়। এও জানিয়েছিলেন, আসানসোলের সাংসদ পদ থেকে ইস্তফা দেবেন। তারপরই তাঁকে বোঝাতে ময়দানে নামেন বিজেপি সভাপতি জেপি নাড্ডা।

সোমবার নাড্ডার বাসভবনে বৈঠক করেন বাবুল। সেখানে একটি মাঝামাঝি পথ বেরিয়েছে। তা হল বাবুল রাজনীতিতে থাকবেন না কিন্তু বিজেপির সাংসদ থাকবেন। পর্যবেক্ষকদের মতে, বাবুল সাংসদ পদ থেকে ইস্তফা দিলে আসানসোল লোকসভা আসনটি শূন্য হবে। সেখানে উপ নির্বাচন হলে বর্তমান পরিস্থিতিতে বিজেপির জেতা মুশকিল। কারণ, বিধানসভা নির্বাচনে আসানসোল লোকসভার আওতায় সাতটি আসনের পাঁচটিতেই ডাহা হেরেছে বিজেপি। লোকসভা ভোটে এই আসনে বাবুল জিতলেও তাঁর ম্যাজিক বিধানসভায় খাটেনি।

বাবুলও নাকি উপনির্বাচনের খরচের প্রসঙ্গ তুলেছেন। সেই রেশ ধরেই কুণাল টুইটে লিখেছেন, “ওওওও বাবুল, উপনির্বাচনের খরচ যদি ইস্তফা না দেওয়ার কারণ হয়, সাংসদ থাকাকালীন বিধানসভায় দাঁড়িয়েছিলে কেন? সেরকম পরিস্থিতি হলে তো একটি ছাড়তে। উপনির্বাচন হত। তার বেলা? ভাগ্যিস তুমি এবং তোমার দল গোহারা হেরেছ!”

বাবুলকে একুশের ভোটে অরূপ বিশ্বাসের বিরুদ্ধে টালিগঞ্জে প্রার্থী করেছিল বিজেপি। কিন্তু বিপুল ভোটে হারতে হয় তাঁকে। অনেকের মতে, কুণাল আসলে বোঝাতে চেয়েছেন খরচের বিষয়টি রাংতা। আসলে বিজেপি বিজেপি আসানসোলের উপনির্বাচন হারের ভয়ে এড়াতে চাইছে।

You might also like