Latest News

Electrical Hazards: অজস্র বিদ্যুৎ সংযোগ, তারের কুণ্ডলীতে জতুগৃহ চাঁদনি চক, আগুনে ক্ষয়ক্ষতি

দ্য ওয়াল ব্যুরো: একশো বছরেরও বেশি পুরোনো ভাঙাচোরা বাড়িতে অজস্র বিদ্যুৎ সংযোগ (Electrical Hazards)। কার্যত জতুগৃহে পরিণত হওয়া চাঁদনি চক গ্রান্ট স্ট্রিটের ১/বি-র বাড়ির শুক্রবারের অগ্নিকাণ্ডের কারণ হিসেবে শর্ট সার্কিটকে দায়ী করেছে দমকল। এদিন গিয়ে দেখা গেল পুড়ে গিয়েছে দুটো দোকান। যেখানে সব রকম কাপড় বিক্রি হত।

আগুন লেগে আশপাশের দোকানেও ক্ষতি হয়েছে। এসি পুড়ে গিয়েছে ক’য়েকটি। সমস্ত বিদ্যুতের তার পুড়ে গিয়েছে।

একটি দোকানের মালিক শ্যামজি ত্রিবেদী বললেন, ‘কীভাবে আগুন লাগল জানিনা। কম করে ১৫ লক্ষ টাকার মাল ছিল। ভোরে ফোন পেয়ে ছুটে আসি। দমকল অন্তত একঘণ্টা পরে এসেছে।’

দোকানে ফায়ার এক্সটিংগুইসার ছিল। কিন্তু তা দিয়েও আগুন কমানো যায়নি, জানালেন আশপাশের দোকানের লোকজন। তাঁরা বলছেন, ‘আগুনের কথা ভাবলেই ভয় লাগছে। পাশাপাশি গোটা এলাকায় আগুন ছড়িয়ে পড়তে পারত।’

তিনতলা ওই বাড়িটির তিনতলায় আগেও আগুন লেগেছিল। বাড়ির অবস্থা খুবই খারাপ (Electrical Hazards)। সেখানকার এক পৌঢ় দোকানি বললেন, ‘কোনও ফায়ার অডিট হয়নি। যে যেখান থেকে পেরেছে বিদ্যুতের সংযোগ নিয়েছে। আরও বড় বিপদ হতে পারত।’

যে দোকানদুটি ভস্মীভূত হয়েছে, তার ওপরের ঘরেই পরিবারের সঙ্গে ভাড়া থাকেন মেনকা জয়সওয়াল। তিনি বললেন, ‘ভোরের দিকে ধোঁয়ায় ঘুম ভেঙে যায়। রাস্তায় ফুটপাথে অনেকেই রাতে ঘুমোয়। ওরা ডিমের খোলা জ্বালিয়ে রাখে। আমি প্রথমে ভেবেছিলাম সেই ধোঁয়া। তারপর টের পাই মেঝে গরম হয়ে আছে। তারপর আমরা ভয়ে নেমে যাই।’

‘অঙ্কিতা ভাল শিক্ষিকা ছিলেন’, বলেন ইন্দিরা উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের হেড দিদিমণি

You might also like