Latest News

লটারিতে ২৫ কোটি জিতেও আফসোস করছেন অনুপ! ‘না জিতলেই ভাল হত’

দ্য ওয়াল ব্যুরো: দিন পাঁচেকও হয়নি ঘটনার। কেরলের অটো চালক (Kerala Auto Driver) অনুপের এক লটারিতে ২৫ কোটি জেতার আনন্দ এখনও মুছে যায়নি, তবে তার আগেই তাঁর মনে নেমে এক অবসাদ। এখন তিনি একটাই কথা মনে করছেন, ‘না জিতলেই হয়তো ভাল হত।’

কিন্তু কেন? পাঁচদিনের মধ্যে কী এমন ঘটে গেল যা তাঁর আনন্দকে বিস্বাদ করে তুলল? দিন পাঁচেক আগেই ওনাম লটারিতে (Lottary) এক ধাক্কায় জিতেছিলেন ২৫ কোটি! কেরলের অটো চালকের জীবন পরিবর্তনের এক অধ্যায়। কিন্তু সেই অধ্যায় শুরু হওয়ার আগেই পাতাগুলো মলিন হয়ে যেতে বসেছে। কারণ, এখন তাঁর বাড়ির দরজায় শুধু লোকের ভিড়। সবারই চাই সাহায্য। অনুপ ও তাঁর পরিবারের রোজ দিন যায় সেই সামলাতেই।

কখনও কোনও এনজিও, নয়তো ব্যক্তি কিংবা কোনও দাতব্য সংস্থা, প্রতিদিন দরজায় কড়া নাড়ছে সাহায্যের জন্য। যার জেরে মানসিক শান্তি হারিয়ে ফেলেছেন অনুপ ও তাঁর পরিবারের লোকেরা। তাঁর পরিবারের কথায়, কয়েকদিন ধরেই বাড়ির বাইরে মানুষের জমায়েত বাড়ছে। যেতে বললেও কেউ যেতে চাইছেন না।

এমনকি অসুস্থ ছেলেকে নিয়ে ডাক্তারের কাছেও যেতে পারছেন না তিনি। ভাল করে বললে, যেতে দিচ্ছেন না বাইরে থাকা জনতা। এক সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে অনুপ জানিয়েছেন, “আমরা আমাদের নিজেদের বাড়ির মধ্যেই আটকা পড়ে রয়েছি। আমার ছেলে অসুস্থ হলেও তাকে ডাক্তারের কাছে নিয়ে যেতে পারছি না।”

লটারি জিতেছেন, এই খবর চাউর হতেই এই অবস্থা। এখনও হাতে টাকা এসে পৌঁছায়নি। এখনও অনুপ ঠিক করে উঠতে পারেননি সেই টাকা নিয়ে কী করবেন। কিন্তু তাঁর আগেই বাড়ির বাইরে পড়ে গেছে লম্বা লাইন।

যা দেখে মনে মনে বিরক্ত হয়ে উঠেছেন অনুপ। তাঁর কথায়, “এখন মনে হচ্ছে আমি যদি এটি না জিততাম ভাল হত। প্রথমে, আমরা সত্যিই মানুষের কাছ থেকে পাওয়া শুভেচ্ছা, সংবাদমাধ্যমের দৃষ্টি সবই উপভোগ করেছি। কিন্তু এখন পুরো সেটাই মাথাব্যথা কারণ হয়ে গেছে। আমি লোকেদের সাহায্য করার পরিকল্পনা করছি তবে তা কীভাবে তা এখনই ভেবে উঠতে পারিনি।”

মজার বিষয় হল, যাঁরা অনুপের বাড়ির বাইরে সাহায্যের জন্য লাইন দিচ্ছেন, তাঁরাই নিজেদের মতো সাহায্যের অর্থ ঠিক করে নিচ্ছেন। কেউ বলছেন ১০ লাখ তো কেউ আবার ১৫।

দিন পাঁচেক আগেও অটো চালিয়েই অনুপের কোনওরকমে পেট চলত। টানাটানির সংসার। তাই ভেবেছিলেন মালয়েশিয়া গিয়ে রান্নার কাজ করবেন। কিন্তু বিদেশ যেতেও ছিল টাকার দরকার! তাই ব্যাঙ্ক থেকে ঋণের আবেদন করেছিলেন অনুপ। কিন্তু একটা লটারি তাঁর ভাগ্য ঘুরিয়ে দিল। এক, দুই জিতেছেন ২৫ কোটি। কিন্তু সেই টাকাই এখন যন্ত্রণার কারণ।

শিক্ষককে পরপর তিন বার গুলি করল ছাত্র! ধমকের ভয়ঙ্কর ‘বদলা’ উত্তরপ্রদেশে

You might also like