Latest News

পরীক্ষায় নম্বর দেননি স্যার, ঝাড়খণ্ডে গাছে বেঁধে পেটাল ছাত্ররা!

দ্য ওয়াল ব্যুরো: নবম শ্রেণির প্র্যাকটিক্যাল পরীক্ষা (examination) ছিল। কিন্তু ফল বেরোনোর পর দেখা গেল, ‘বেশি’ নম্বর (marks) দেননি শিক্ষক। ফেল করেছে অনেকেই। সেই রাগেই অঙ্কের শিক্ষক (teacher) এবং স্কুলের এক কর্মীকে (clerk) গাছে বেঁধে (Tied to tree) বেদম মারধর (thrashed) করল ছাত্ররা (students)।

ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার ঝাড়খণ্ডের (Jharkhand) গোপীকান্দার থানার অন্তর্গত দুমকার তফশিলি উপজাতি সম্প্রদায়ের একটি সরকারি আবাসিক স্কুলে। জানা গেছে, মোট ৩৬ জন ছাত্র পরীক্ষা দিয়েছিল। তাদের মধ্যে ১১ জন অকৃতকার্য হয়। তারা প্র্যাকটিক্যাল পরীক্ষার খাতা দেখতে চাইলে স্কুলের প্রধান শিক্ষক রাজি হননি বলে জানা গেছে। এরপর তারা স্কুলের অশিক্ষক কর্মী সোনেরাম চাউরের কাছে একই দাবি নিয়ে যায়। কিন্তু তিনিও ছাত্রদের দাবি কানে তোলেননি।

এরপরে ক্ষেপে ওঠে ছাত্ররা। অঙ্কের শিক্ষক সুমন কুমার এবং সোনেরাম নামে ওই কর্মীকে গাছে দড়ি দিয়ে বেঁধে বেদম মারধর করে ছাত্ররা। সে সময় তাদের একটি চেয়ার ভেঙে ফেলতে দেখা যায়। ছাত্রদের মধ্যেই কেউ কেউ পুরো ঘটনা মোবাইলে রেকর্ড করে রাখে। পরে সেই ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে নেটমাধ্যমে।

ঘটনাটি জানতে পেরেছেন গোপীকান্দারের বিডিও অনন্ত ঝা। গোপীকান্দার থানার ভারপ্রাপ্ত আধিকারিক নিত্যানন্দ ভক্তকে নিয়ে তিনি পুরো ঘটনার বিষয়ে তদন্ত করতে স্কুলে পৌঁছে যান বলে জানা গেছে।

৪৪১কে ভাগ করতে হবে ৪ দিয়ে, পারলেন না প্রধান শিক্ষিকা! চাকরি গেল তাঁর

You might also like