Latest News

Jalpaiguri: কালবৈশাখীতে তছনছ বই-খাতা, চরম বিপদে উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার্থী

দ্য ওয়াল ব্যুরো: হঠাৎ কালবৈশাখী ঝড় এসে চোখের নিমেষে উড়িয়ে নিয়ে গেছে বাড়ির চাল। তারপরই ঝেঁপে আসা বৃষ্টিতে ভিজেছে সবকিছু। মাথার উপর চাল না থাকায় এটাই স্বাভাবিক। আর তাতেই বাকি সব কিছুর সঙ্গে বৃষ্টির জলে ভিজে নষ্ট হয়েছে বই-খাতা। এদিকে উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষা চলছে! এবার কী হবে সেই চিন্তায় ঘুম উড়েছে জলপাইগুড়ির (jalpaiguri) উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার্থী (HS Exam) সীমা সূত্রধরের।

আরও পড়ুন: বোলপুরে বাবা ও তার বন্ধু মিলে ধর্ষণ করল নাবালিকাকে! মায়ের সামনেই ঘটল সবটা

জলপাইগুড়ি (jalpaiguri) পুরসভার ২১ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা সীমা সবে মাত্র দুটো পরীক্ষা দিয়েছে। এখনও উচ্চমাধ্যমিকের চারটি বিষয়ের পরীক্ষা বাকি। রবিবার বিকেলের কালবৈশাখী ঝড়ে তার বাড়ির টিনের চাল উড়ে যায়! পাশের একটি গাছ থেকে ঝুলছে সেই চাল। ঝড়ের পর‌ই ধেয়ে আসে মুষলধারে বৃষ্টি। তাতে ভিজে ন্যাতা হয়ে গিয়েছে বই-খাতা সহ বাড়ির সব জিনিস।

উপনির্বাচনের কারণে সাময়িকভাবে বিরতি চলছে উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষায়। কিন্তু আগামী ১৬ তারিখ থেকে ফের পরীক্ষা শুরু হলে কী হবে তা ভেবে রাতের ঘুম উড়ে যাওয়ার জোগাড় সীমা ও তার পরিবারের। বাড়ির চাল উড়ে যাওয়ায় থাকার জায়গাও নেই।

পরিবারটির এই দুর্দশার খবর পেয়ে স্থানীয় কাউন্সিলর এসে একটি ত্রিপল দিয়ে গিয়েছেন। তাতে গোটা বাড়িটা ঢাকা দেওয়া যায়নি। এদিকে ঝিরঝির করে বৃষ্টি হয়েই চলেছে। আর্থিক দুরবস্থার কারণে নিজেরাও যে বাড়ির চাল সারিয়ে নেবেন সেই উপায়‌ও নেই। ওই উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষার্থীর পরিবার এখন অন্যের দিকে তাকিয়ে। যদি কেউ এগিয়ে এসে সাহায্য করে।

এই ঘটনায় জলপাইগুড়ি পুরসভার পুরপ্রধান পাপিয়া পাল বলেন, গতকালের বিধ্বংসী ঝড়ে বিভিন্ন ওয়ার্ড থেকে ক্ষতির খবর এসেছে। ক্ষয়ক্ষতির হিসাবের কাজ চলছে। কেউ যদি পুরসভায়  সাহায্যের আবেদন করে তবে তাকে নিশ্চয়ই সাহায্য করা হবে।

You might also like