Latest News

‘ছোট্ট বাচ্চাটাও কি যুদ্ধ করছিল?’ ইজরায়েলি হানায় নিহত ৫ বছরের নাতনি, আকুল কান্না দাদুর

দ্য ওয়াল ব্যুরো: গাজা-ইজরায়েল দ্বন্দ্ব চলছেই। ইজরায়েলের ভয়াবহ আক্রমণে (Israel Strike) শনিবার গাজার (Gaza) ১০ জন নাগরিকের মৃত্যু হয়েছে। আর সেই ১০ জনের মধ্যে ছিল বছর পাঁচেকের ছোট্ট এক মেয়ে। তার নিথর দেহ কোলে নিয়ে পরিবারের আকুল কান্না নাড়িয়ে দিয়েছে গোটা বিশ্বকে। আরও একবার সামনে এনে দিয়েছে যুদ্ধের সর্বগ্রাসী রূপ।

শনিবার গাজায় আকাশপথে ভয়াবহ হামলা চালায় ইজরায়েল। তার পাল্টা হিসেবে প্যালেস্তাইনের জঙ্গি গোষ্ঠীও রকেট হামলা করে ইজরায়েলের আকাশে। দুই দেশের এই হিংসা, হানাহানির মাঝে ঝরে গেছে নিষ্পাপ প্রাণ। মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়েছে ছোট্ট আলা কাদ্দুম। বয়স মাত্র ৫ বছর।

তার শেষকৃত্যের আয়োজন করতে গিয়ে কান্নায় ভেঙে পড়েছেন আলার দাদু। তুলে দিয়েছেন বুক কাঁপানো প্রশ্ন। এইটুকু শিশু, ওর কী দোষ ছিল? ও কি যুদ্ধ করছিল? ওকে কেন মরতে হল?

গাজার সংবাদমাধ্যমের তরফে মন কেমন করা সেই ভিডিও শেয়ার করা হয়েছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে সাদা কাপড়ে মোড়া ছোট্ট দেহটিকে কোলে নিয়ে আকুল কাঁদছেন মেয়েটির আপনজনেরা। মেয়েটির কপালে আগ্নেয়াস্ত্রের ক্ষত তখনও দগদগে। ছোট্ট নাতির দেহ আঁকড়ে কান্না থামছে না আলার দাদুর। ক্যামেরার দিকে তাকিয়ে তিনি প্রশ্ন করছেন, এই ছোট শিশুর অপরাধ কী? কেন ওকে এভাবে মরতে হল?

তিনি আরও জানিয়েছেন, আলা নার্সারি স্কুলে যাওয়ার প্রস্তুতি নিচ্ছিল। নতুন ব্যাগ, নতুন জামা-কাপড়ের জন্য বায়না করছিল। এই নিষ্পাপ শিশু… ও কি রকেট ছুড়েছে না যুদ্ধ করেছে? ও কী করেছে যে ওকে এই শাস্তি পেতে হবে?

ইজরায়েলের রকেট হামলায় গাজার ১০ জন নিহত হয়েছেন। আহতের সংখ্যা ৭৯ জন। ইজরায়েলের তরফে দাবি করা হয়েছে তাদের হামলায় ১৫ জন জঙ্গির মৃত্যু হয়েছে।

আরও পড়ুন: পাকিস্তানে গত ৩০ বছরে সবচেয়ে ভয়াবহ বন্যা, মৃত্যু পাঁচশোর বেশি, ঘরছাড়া হাজার হাজার মানুষ

You might also like