Latest News

লজ্জা! পাকিস্তানের স্বাধীনতা দিবসে মহিলা ইউটিউবারকে শূন্যে ছুঁড়ে, পোশাক ছিঁড়ে নিগ্রহ

দ্য ওয়াল ব্যুরো: গত ১৪ আগস্ট স্বাধীনতা দিবসে পাকিস্তানের মাথা হেঁট করে দিল মহিলা ইউটিউবার নিগ্রহের ঘটনা। লাহোরের গ্রেটার ইকবাল পার্কে মিনার-ই-পাকিস্তানের কাছে ভিডিও তোলার সময় তিনি ও তাঁর সঙ্গীসাথীরা আক্রান্ত হন বলে অভিযোগ। লাহোর পুলিশ অজ্ঞাতপরিচয় দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে মামলা রুজু করেছে। এফআইআরে ওই ইউটিউবারের দাবি, তিনি, তাঁর ৬ সঙ্গী যখন ভিডিও করছিলেন, প্রায় তিন-চারশ জনের একটি দল তাদের আক্রমণ করে। উন্মত্ত জনতার হাত থেকে তাঁরা পালানোর খুব চেষ্টা করেন। পরিস্থিতি দেখে পার্কের নিরাপত্তারক্ষীরা মিনার-ই-পাকিস্তানের পাশের এনক্লোজারে যাওয়ার গেট খুলে দেন।

ইউটিউবার বলেছেন, কিন্তু উত্তেজিত জনতার ভিড় বেশ বড় ছিল। তারা এনক্লোজার টপকে আমাদের দিকে এগিয়ে আসে। আমায় ধরে এমন টানাহ্যাঁচড়া করা হয় যে আমার পোশাক ছিঁড়ে যায়। আমায় অনেকে  সাহায্য করার চেষ্টা করেন, কিন্তু ভিড়ের মুখে তাঁরা কিছু করতে পারেনি। আমায় শূন্যে ছুঁড়ে দেওয়া হয়। ধস্তাধস্তির মধ্যে তাঁর আংটি, কানের দুল জোর করে খুলে নেওয়া হয়, তাঁর এক সঙ্গীর মোবাইল ফোন, পরিচয়পত্র, নগদ ১৫ হাজার টাকাও খোয়া যায় বলে এফআইআরে জানান ইউটিউবার।  অজ্ঞাতপরিচয় দুষ্কৃতীরা আমাদের ওপর হিংস্র চেহারায় হামলা করে, বলেছেন তিনি।
Image - লজ্জা! পাকিস্তানের স্বাধীনতা দিবসে মহিলা ইউটিউবারকে শূন্যে ছুঁড়ে, পোশাক ছিঁড়ে নিগ্রহ

পাকিস্তানি দণ্ডবিধির ৩৫৪ এ, ৩৮২, ১৪৭, ১৪৯ ধারায় এফআইআর দায়ের করা হয়েছে। মহিলা নিগ্রহ, মহিলার ওপর ফৌজদারি বলপ্রয়োগ, তার জামাকাপড় ছেঁড়া, চুরি করার জন্য আঘাত করা, চুরি করা, বেআইনি জমায়েতের অভিযোগ দায়ের হয়েছে।

ইউটিউবার নিগ্রহের একটি ভিডিও সোস্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে, যা দেখে নিগ্রহকারীদের সাজা চেয়ে সরব হয়েছে নেটিজেনরা।

ইদানীং পাকিস্তানে নারী নির্যাতন, নারীহত্যার ঘটনা  নিয়ে শোরগোল চলছে। সোস্যাল মিডিয়ায় আরও একটি ভিডিও ছড়ায় যাতে ইসলামাবাদে এক দম্পতির ৬টি লোকের হাতে হেনস্থার দৃশ্য রয়েছে।  বন্দুক ঠেকিয়ে তারা দম্পতিকে পোশাক খুলতে বাধ্য করে, মারধর করে। তাদের গালিগালাজ করা হয়, তাদের সামনে বিকৃত যৌন আচরণ করে নিগ্রহকারীরা।

You might also like