Latest News

মোদীর ইচ্ছেতেই কলকাতার পুজোর আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি, দাবি কেন্দ্রের অনুষ্ঠানেও

দ্য ওয়াল ব্যুরো: দুর্গাপুজোর (Durgapuja) হেরিটেজ (Heritage) তকমা প্রাপ্তির দ্বিতীয় উদযাপন হল কলকাতায় (Kolkata)। এবার কেন্দ্র সরকারের তরফে। শনিবার, কলকাতা মিউজিয়ামের লনের মঞ্চে হল একাধিক সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান। এবং সেইসঙ্গে কেন্দ্রীয় প্রতিনিধিরা দাবি করলেন, বাঙালির উৎসবের আন্তর্জাতিক স্বীকৃতি প্রাপ্তির পিছনে সবথেকে বড় অবদান প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর (PM Narendra Modi)।

অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় সংস্কৃতি ও বিদেশ প্রতিমন্ত্রী মীনাক্ষী লেখি এবং কেন্দ্রীয় শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী ড.‌ সুভাষ সরকার। প্রতিমা ও মণ্ডপশিল্পী, প্রতিমার অলঙ্কারশিল্পী, ঢাকি, পুরোহিত, বিভিন্ন রাজবাড়ির প্রতিনিধি-সহ ৩০ জনকে সংবর্ধনা দেওয়া হয়। নৃত্য পরিবেশন করে ডোনা গঙ্গোপাধ্যায়ের নাচের দল দীক্ষামঞ্জুরী।

কংগ্রেসের শীর্ষ পদের লড়াই থেকে সনিয়া, রাহুলরা কেন সরে দাঁড়ালেন

মীনাক্ষী লেখি বলেন, ‘২০১২ সালে দুর্গাপুজোকে ইউনেস্করকে পাঠানোর প্রস্তাব উঠেছিল। কিন্তু বাতিল হয়েছিল। দেশে অনেক শহরেই দুর্গাপুজো হয়। কিন্তু মোদীজি বলেছেন কলকাতার নাম দাও। গুজরাতি হয়েও কলকাতাকে স্বীকৃতি দিয়েছেন।’

সুভাষ সরকার বলেন, ‘দুর্গাপুজো সবার। সবকিছুর উর্দ্ধে। কিছু জিনিসের আমরা-ওঁরা হয়না।’

গবেষক তপতী গুহঠাকুরতা হেরিটেজ স্বীকৃতির জন্য অনেক খেটেছেন। তাঁর অবদান অনস্বীকার্য। মঞ্চ থেকে একথা বার বারই স্বীকার করেছেন বক্তারা। কিন্তু আমন্ত্রণ সত্ত্বেও তপতী কেন্দ্রের অনুষ্ঠানে আসেননি।

You might also like