Latest News

Imran Khan : আমাকে তিনটি সুযোগের মধ্যে একটি বেছে নিতে বলা হয়েছে, জানালেন ইমরান

দ্য ওয়াল ব্যুরো : ‘ইস্তফা দেওয়া, অনাস্থা ভোটের মুখোমুখি হওয়া অথবা ভোটে যাওয়া (Imran Khan)। আমাকে এই তিনটির মধ্যে একটি বেছে নিতে বলা হয়েছে’। শনিবার এমনই জানালেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান (Imran Khan)। গত ২৮ মার্চ বিরোধীরা ইমরানের (Imran Khan) বিরুদ্ধে অনাস্থা প্রস্তাব এনেছেন। তার ওপরে ভোটাভুটি হবে সম্ভবত রবিবার। তার ২৪ ঘণ্টা আগে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী (Imran Khan) বললেন, ‘প্রতিষ্ঠান’ আমাকে তিনটি সুযোগ দিয়েছে। প্রতিষ্ঠান বলতে কী বোঝাচ্ছেন, ইমরান স্পষ্ট করে বলেননি।

স্বাধীনতার পরে একাধিকবার সেনা অভ্যুত্থান ঘটেছে পাকিস্তানে। দীর্ঘদিন সেনাশাসকদের অধীনে থেকেছে ওই দেশ। এখনও প্রশাসনে সেনাবাহিনীর প্রভাব আছে যথেষ্ট। কয়েকদিন আগেই সেনাপ্রধান কামার জাভেদ বাওয়েজা প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনে গিয়ে তাঁর সঙ্গে দেখা করেছেন।

শনিবার এক স্থানীয় সংবাদ সংস্থা ইমরানকে প্রশ্ন করে, বিরোধীরা কি আপনাকে নির্বাচন করতে বলেছেন? পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমাকে তিনটি সুযোগ দেওয়া হয়েছে। পরে প্রাক্তন ক্রিকেটার ইমরান বলেন, “আমরা মনে করি দ্রুত ভোট করলেই সবচেয়ে ভাল হবে। কিন্তু অনাস্থা ভোট সম্পর্কে বলতে পারি, আমি শেষ পর্যন্ত লড়াই করব।”

৬৯ বছর বয়সী রাজনীতিক ইমরানের তেহরিক ই ইনসাফ দলের কয়েকজন সাংসদ দলত্যাগ করে বিরোধীদের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন। এসম্পর্কে প্রশ্ন করলে তিনি বলেন, “অনাস্থা ভোটে যদি আমরা জিতেও যাই, দলত্যাগীদের নিয়ে সরকার চালানো সম্ভব হবে না।” ‘ডন’ সংবাদপত্রের রিপোর্টার ইমরানকে প্রশ্ন করেন, আপনি কি দ্রুত ভোটে যেতে তৈরি?

তিনি বলেন, “আমরা যদি অনাস্থা ভোটে জয়লাভ করি, তাহলে দ্রুত নির্বাচন করাই উচিত হবে।” বিরোধী দল পাকিস্তান মুসলিম লিগ (নওয়াজ) এবং পাকিস্তান পিপলস পার্টির সমালোচনা করে তিনি বলেন, তাদের জন্যই একটি বিদেশী শক্তি পাকিস্তানে জমানা বদলের কথা বলতে পারছে।

আরও পড়ুন : Trade Pact : ‘ঐতিহাসিক মুহূর্ত’! অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে মেগা বাণিজ্য চুক্তি স্বাক্ষরের পরে বললেন মোদী

You might also like