Latest News

ICSE-ISC: সেমিস্টার পদ্ধতি বাতিল, আইসিএসই ও আইএসসি শিক্ষার্থীরা একটি করে পরীক্ষা দেবে ২০২৩-এ

দ্য ওয়াল ব্যুরো: সেমিস্টার আর পরীক্ষা নয়, শিক্ষাবর্ষ শেষে একটিমাত্র পরীক্ষাই নেওয়া হবে, শুক্রবার আইসিএসই কাউন্সিল (ICSE Council) বিজ্ঞপ্তি জারি করে এমন কথাই জানিয়ে দিয়েছে। অর্থাৎ ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষের ক্ষেত্রে বোর্ড পরীক্ষা যেমন দুই সেমিস্টারের ভাগ করে দেওয়া হয়েছিল, চলতি শিক্ষাবর্ষে তেমন থাকবে না। পুরনো পদ্ধতিতেই ফিরে যাচ্ছে আইসিএসই কাউন্সিল। ফলে আইসিএসই ও আইএসসি (ICSE-ISC) উভয় ক্ষেত্রেই শিক্ষাবর্ষ শেষে একটি করে পরীক্ষা নেওয়া হবে।

পাশাপাশি আরও জানানো হয়েছে, ২০২৩ সালের ফেব্রুয়ারি ও মার্চ নাগাদ এই পরীক্ষা নেওয়া হবে (ICSE-ISC)। শেষবার এমন পূর্ণ পরীক্ষা নেওয়া হয়েছিল ২০১৯ সালে। ২০২০ সালে পরীক্ষা চলাকালীন করোনার কারণে লকডাউন হয়ে যাওয়ায় কিছু বিষয়ে পরীক্ষা নেওয়া হয়নি। ২০২১ সালে একই কারণে কোনও পরীক্ষাই নেওয়া যায়নি।

তবে ২০২২ সালে করোনার প্রাদুর্ভাব কমে যাওয়ায় দুই দফায় এই পরীক্ষা নেওয়া হয়েছিল। প্রথম সেমিস্টার অনুষ্ঠিত হয়েছিল ২০২১ সালের নভেম্বর-ডিসেম্বর মাসে ও দ্বিতীয় সেমিস্টার অনুষ্ঠিত হচ্ছে চলতি বছরের মে-জুন মাসে।

তবে পরের বছর থেকে এই সিস্টেম আর থাকবে না। বিজ্ঞপ্তি জারি করে বলা হয়েছে যে, ২০২৩ শিক্ষাবর্ষের শেষে আইসিএসই ও আইএসসি (ICSE-ISC) উভয় ক্ষেত্রেই একটি পরীক্ষা পরিচালনা করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। পরীক্ষাগুলি ২০২৩ সালের ফেব্রুয়ারি ও মার্চ মাসে নেওয়ার প্রস্তাব করা হয়েছে।

অন্যদিকে, স্কুলগুলিকেও জানানো হয়েছে তারা যেন অ্যাকাডেমিক ক্যালেন্ডার এমনভাবে তৈরি করে যাতে পড়ুয়াদের পর্যাপ্তভাবে পরীক্ষার জন্য প্রস্তুত করা যায়। শুধু তাই নয়, আইসিএসই ও আইএসসি পরীক্ষার সিলেবাসেও কিছু বদল করা হয়েছে বলে জানানো হয়েছে বিজ্ঞপ্তিতে। বলা হয়েছে, সংশোধিত পাঠ্যক্রমটি কাউন্সিলের ওয়েবসাইটে উপলব্ধ।

শিক্ষক মহলের অনেকেই পুরনো পদ্ধতিতে অর্থাৎ সেমিস্টারের বদলে একটি পরীক্ষা নেওয়ার বিষয়ে বেশি গুরুত্ব দিচ্ছেন। সেন্ট জেমস স্কুলের অধ্যক্ষ টেরেন্স আয়ারল্যান্ড বলেন, “সেমিস্টার পরীক্ষা শিক্ষার্থীদের মধ্যে পড়াশোনার প্রতি আগ্রহ কমিয়ে দিচ্ছে। তারা শুধুমাত্র সেমিস্টার পরীক্ষার সিলেবাস বা মক টেস্ট দেওয়ার বিষয়ে বেশি আগ্রহী। এমসিকিউ শুধুমাত্র প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষার ক্ষেত্রে কার্যকর হতে পারে, কখনই তা স্কুল পরীক্ষার ক্ষেত্রে বিকল্প হতে পারে না।’

তবে কেউ কেউ আবার এও মনে করেন যে, এমসিকিউ বড় প্রশ্নপত্রের সঙ্গে যুক্ত করা যেতে পারে। ফলে শিক্ষার্থীদের মধ্যে দুই ক্ষেত্রেই পরীক্ষা দেওয়ার ব্যাপারে অভ্যাসের মধ্যে থাকবে।

অনলাইন পরীক্ষার দাবিতে আত্মহত্যার চেষ্টা, রাতে আলো নিভিয়ে পড়ুয়াদের মারধরের অভিযোগ

You might also like