Latest News

বিস্ফোরক মমতা: ‘রাজনীতি করেছি ভোগ করার জন্য নয়, দুর্নীতিকে সাপোর্ট করি না’

দ্য ওয়াল ব্যুরো: নজরুল মঞ্চে বঙ্গবিভূষণ সম্মান প্রদানের মঞ্চে সবার নজর ছিল মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee) বক্তৃতার দিকে। পার্থ চট্টোপাধ্যায়-অর্পিতা মুখোপাধ্যায়ের কাণ্ডের পর এটাই মুখ্যমন্ত্রীর প্রথম প্রকাশ্য কর্মসূচি ছিল। মুখ্যমন্ত্রী সেই প্রসঙ্গে তাৎপর্যপূর্ণ মন্তব্য করলেন মুখ্যমন্ত্রী। এদিন মমতা বলেন, “সারা জীবন রাজনীতি করেছি ভোগ করার জন্য নয়। ত্যাগের জন্যই রাজনীতি করেছি।”

এরপরেই মমতা বলেন, “সব স্কুলে সব স্টুডেন্ট একরকম হয়? পার্থক্য থাকে না? পার্থক্য না থাকলে তো আম ও আমড়া এক গাছে হতো। আমি অন্যায়কে সাপোর্ট করি না। দুর্নীতি আমার নেশাও নয় পেশাও নয়।”

পার্থর বাড়িতে ইডি হানা, ট্র্যাপও হতে পারে: মমতা

ওই ঘটনা নিয়ে যে ভাবে তাঁর বিরুদ্ধে আক্রমণ শানাচ্ছে বিরোধীরা তা নিয়ে এদিন তীব্র তোপ দেগেছেন মমতা। নাকতলা উদয়ন সঙ্ঘের পুজোর মঞ্চে কয়েক বছর আগে হাজির ছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। সেই মঞ্চে ছিলেন অর্পিতা। সেই ফুটেজ নিয়ে বিজেপি ও সিপিএম সোশ্যাল মিডিয়ায় চড়া দাগে আক্রমণ শানিয়েছে মমতার বিরুদ্ধে। এদিন সেইপ্রসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “সিপিএম আর বিজেপির এত বড় সাহস, আমার ছবির সঙ্গে টাকার ছবি দিয়ে কুৎসা চালাচ্ছে। রাজনীতি না করলে ওদের জিভ কেটে দিতাম।”

এখানেই থামেননি মমতা। মুখ্যমন্ত্রী আরও বলেন, “আমি একটা পুজোয় গেছি। তারা আমায় ডেকেছিল। সেখানে কে আছে আমি জানি? পরে শুনলাম পার্থর বন্ধু। কে কার বন্ধু আমার পক্ষে জানা সম্ভব? আমি কারও পয়সায় খাই না। যখন রেলমন্ত্রী ছিলাম, তখন নিজের পয়সায় চা খেতাম।”

এদিন মুখ্যমন্ত্রীর বক্তৃতা ছিল আগুন ঝরা। গত আড়াই দিন ধরে যা চলেছে তাতে যেন বারুদের স্তূপ নিয়ে এদিন সরকারি অনুষ্ঠান মঞ্চে হাজির হয়েছিলেন তিনি। তারপর একের পর এক বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন। একদিকে বুঝিয়ে দিলেন, দুর্নীতির সঙ্গে তাঁর নাম যাঁরা জড়াচ্ছে তাঁদের বিরুদ্ধে তিনি রাজনৈতিক ভাবেই মোকাবিলা করবেন। সেইসঙ্গে এও বললেন, ওই মহিলার (অর্পিতা মুখোপাধ্যায়) সঙ্গে দল বা সরকারের সম্পর্ক নেই। শুধু তাই নয়।মমতা এও দাবি তুললেন, এই তদন্ত দ্রুত শেষ হোক। এবং এটা ঘটনা না রটনা তা খুঁজে বের করে যা করার তাড়াতাড়ি করা হয়। মুখ্যমন্ত্রীর কথায়, দোষী প্রমাণিত হলে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড হলে হবে।

You might also like