Latest News

গেহলট বাহিনীর বিদ্রোহ! গণ ইস্তফার হুমকি রাজস্থানের ৯০ কংগ্রেস বিধায়কের

দ্য ওয়াল ব্যুরো: এক ব্যক্তি এক পদ- বহুদিন ধরেই দলের মধ্যে এই নীতি চালু করার কথা বলে আসছিলেন তৃণমূল কংগ্রেসের সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। যদিও তিনি এখনও নিজের লক্ষ্যে পুরোপুরি সফল হন নি। তবে এবার সেই একই দাবি তুলতে দেখা গেল রাহুল গান্ধীকেও। কংগ্রেসের (Congress) মধ্যেই তিনি এই একই নীতি চালু করতে চাইছেন। কিন্তু তৃণমূলের মতো কংগ্রেসের অন্দরেও এই নিয়ে বিরোধিতা দেখা যাচ্ছে। আর সভাপতি নির্বাচনের আগে সেই অসন্তোষ আরও বেড়েছে।

এইমুহূর্তে পরিস্থিতি এমন পর্যায়ে পৌঁছেছে যে রাজস্থানে (Rajasthan) সরকার টিকিয়ে রাখাই একপ্রকার অসম্ভব হয়ে দাঁড়িয়েছে কংগ্রেসের কাছে। সূত্রের খবর, রাজস্থানের ৯০ জনেরও বেশি বিধায়ক (MLA) ইস্তফা দিতে উদ্যত হয়েছেন। বিধানসভার স্পিকারের সঙ্গে দেখা করতে যাচ্ছেন তাঁরা। জানা গেছে, সম্ভাব্য মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে অশোক গেহলটের (Ashok Gehlot) বদলে সচিন পাইলটের নাম উঠে আসতেই বিদ্রোহ শুরু করেছেন রাজস্থানের কংগ্রেস বিধায়করা।

ওই বিদ্রোহী বিধায়করা গেহলট-ঘনিষ্ঠ বলেই জানা গিয়েছে। এখনও পর্যন্ত যা সম্ভাবনা, তাতে আসন্ন কংগ্রেস সভাপতি নির্বাচনে গেহলটও প্রতিদ্বন্দ্বিতা করতে চলেছেন। কিন্তু রাহুল গান্ধী আগেই সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, এক ব্যক্তি এক পদ নীতি মেনে রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী পদ ধরে রেখে সভাপতি পদে আসীন হওয়া যাবে না। সেক্ষেত্রে গেহলট যদি কংগ্রেস সভাপতি হন, তাহলে রাজস্থানের মুখ্যমন্ত্রী পদে বসার সম্ভাবনা সবথেকে বেশি সচিন পাইলটেরই। এই এক পদ এক নীতির কথা বলতেই বিদ্রোহ শুরু করেন কংগ্রেস বিধায়করা।

রবিবার বিধায়ক শান্তি ধরিওয়ালের নেতৃত্বে জরুরি বৈঠকে বসেন রাজস্থান কংগ্রেসের বিদ্রোহী বিধায়করা। সেখানে সকলেই সচিনের বিরুদ্ধে থাকবেন বলে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এক্ষেত্রে বিদ্রোহী শিবিরের যুক্তি, দলের সঙ্কটের সময় যিনি দলের পাশে থাকেননি, তাঁকে মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে মেনে নেওয়ার কোনও প্রশ্নই ওঠে না। উল্লেখ্য, ২০২০ সালে সচিন নিজে অশোক গেহলটের বিরুদ্ধে বিদ্রোহ ঘোষণা করেছিলেন। সেসময় দেশজুড়ে চলতে থাকা বিজেপির আগ্রাসনের সামনে রাজস্থান কংগ্রেসের টালমাটাল অবস্থা তৈরি করে ফেলেছিলেন তিনি। মনে করা হচ্ছে, সেই বিষয়টিকেই আবার তুলে আনতে চাইছেন বিদ্রোহী বিধায়করা।

গুজরাতে বিধানসভা ভোটে লড়বে ওয়েইসিরদল, প্রার্থী করলেন এক হিন্দুকেও

You might also like