Latest News

দিনহাটার বিস্ময়কন্যা! মাত্র ১০ ঘণ্টায় এঁকে ফেললেন বিশাল মণ্ডলা আর্ট

দ্য ওয়াল ব্যুরো: সবচেয়ে বড় মণ্ডলা আর্ট বানিয়ে তাক লাগিয়ে দিলেন দিনহাটার এক কন্যা। প্রায় পঞ্চাশ ফুটের প্লাই উড শিটে এঁকে ফেললেন সেই বিপুল নকশার বুনন। সময় নিলেন মাত্র ১০ ঘণ্টা।

ছবি মানেই যে গাণিতিক নকশা। আর মণ্ডলা আর্ট তার আদর্শ উদাহরণ। সংস্কৃত শব্দ মণ্ডলার অর্থ বৃত্ত, তবে নিছক বৃত্ত দিয়েই মণ্ডলা আর্ট হয় না। বৃত্তের পরতে পরতে বুনতে হয় জ্যামিতিক নকশার পাঁচিল। একই বৃত্তে লুকিয়ে থাকে অসংখ্য বর্গক্ষেত্রের চৌকোনা রহস্য, যার ভেতর একবার ডুব দিলেই হারিয়ে যাওয়ায় যায়। অনন্তের হদিশ মেলে সেই মণিকোঠায়।

হিন্দু এবং বৌদ্ধ ধর্মের সাধকরা প্রাচীন কাল থেকেই মণ্ডলায় মন নিবেশ করেছেন। ভারতীয় যোগবিদ্যার সঙ্গেও অচ্ছেদ্য বন্ধন সেই নকশার।

তবে ইদানিং গ্রাম শহরে মণ্ডলা আর্টের চর্চা করেন না তেমন কেউ। শিল্পকলার সিলেবাসের পাতায় মুখ লুকিয়ে রয়ে গেছে সেই প্রাচীন শিল্পের কৌশল। যাকে আবার সবার সামনে এনে ফেললেন দিনহাটার ছাত্রী সঙ্গীতা চক্রবর্তী। শুধু তাই নয়, সবচেয়ে বড় মণ্ডলা আর্ট বানিয়ে ইন্ডিয়া বুক অব রেকর্ড এ নামও তুললেন তিনি।

দিনহাটা ৭ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা সঙ্গীতা, মধ্যবিত্ত পরিবারের মেয়ে। ছোটবেলা থেকেই অভাব-অনটনের মধ্যে বড় হলেও পড়াশোনা এবং খেলাধুলোয় তার নাম আছে যথেষ্টই। এবার মাত্র ১০ ঘন্টায় ৪৭.৫ ইঞ্চির প্লাইউড শিটের ওপর সবচেয়ে বড় মণ্ডলা গড়েও নজর কাড়লেন সেই মেয়ে। অনুপ্রেরণা যোগালেন বাকিদেরও।

সম্প্রতি দিনহাটা কলেজ থেকে স্নাতক স্তরের পড়া শেষ করেছেন সঙ্গীতা। সংসারে অভাব অনটন থাকায় উচ্চশিক্ষা এখনও শুরু করতে পারেনি। ২০২১ এর অক্টোবর মাসে তিনি গুগল সার্চ করে ইন্ডিয়া বুক অব রেকর্ডের নিয়মাবলী সম্পর্কে ওয়াকিবহাল হন। তারপর থেকেই মণ্ডলা আর্টের কথা ভাবেন।

২০২১ সালের নভেম্বরে প্লাইউড শিটের ওপর মণ্ডলা তৈরি করে সেটা ভিডিও রেকর্ড করে পাঠিয়ে দিয়েছিলেন ইন্ডিয়া বুক অফ রেকর্ডসে। তারপর ২০২১ এর ডিসেম্বরেই সঙ্গীতার ইমেইল অ্যাড্রেসে ইন্ডিয়া বুক অব রেকর্ডসে তরফ থেকে একটি মেইল আসে। তাতে লেখা ছিল তিনি ইন্ডিয়া বুক অব রেকর্ডসে সব চেয়ে বড় মণ্ডলা আর্টের জন্য নাম তুলে নিয়েছেন তিনি।

একমাত্র মেয়ের এত বড় সাফল্যে খুশি মা বাবাও। পাশাপাশি আনন্দ জোয়ার বইছে পাড়াতেও। দিনহাটার সেই মেয়ে এখন সুপারস্টার।

You might also like