Latest News

পশ্চিমবঙ্গ থেকে বাংলা হওয়ার পথে বাধা স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক, গুলিয়ে যেতে পারে বাংলাদেশের সঙ্গে

দ্য ওয়াল ব্যুরো: নামবদলের প্রস্তাব এসেছিল মাস কয়েক আগেই। পশ্চিমবঙ্গ থেকে বাংলা হবে রাজ্যের নাম, রাজ্য সরকারের এই সিদ্ধান্ত ঘোষণার পরে তৈরি হয়েছিল বহু তর্কবিতর্কও। কিন্তু এই নাম বদলের প্রস্তাবে এবার জল ঢেলে দিল খোদ কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক। তারা এ বিষয়ে বিদেশ মন্ত্রকের প্রতিক্রিয়া দাবি করেছে।

সম্প্রতি এ রাজ্যের নাম পাল্টে ‘বাংলা’ করার যে প্রস্তাব কেন্দ্রের কাছে পাঠিয়েছিল রাজ্য সরকার, তার প্রতিক্রিয়া স্বরূপ কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক একটি বার্তার মাধ্যমে বিদেশ মন্ত্রককে জানিয়েছে, যে প্রস্তাবিত নতুন নামটির সঙ্গে অনেকটাই মিল রয়েছে বাংলাদেশের। এর ফলে আন্তর্জাতিক ফোরামে দুটি নামের তফাত করা কঠিন হতে পারে অনেকের কাছে।

আবার যেহেতু বাংলাদেশ ভারতের মিত্র রাষ্ট্র, তাই নতুন নামকরণ বিষয়ে কোনও সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক মনে করছে, যে এ বিষয়ে বিদেশ মন্ত্রকের অভিমতও নেওয়া প্রয়োজন। কারণ এ ক্ষেত্রে সাংবিধানিক পরিবর্তনেরও প্রয়োজন রয়েছে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক সূত্রে জানানো হয়েছে, বিদেশ মন্ত্রকের কাছ থেকে প্রতিক্রিয়া এলে মন্ত্রিসভার জন্য একটি ড্রাফট নোট তৈরি করে সাংবিধানিক পরিবর্তনের প্রক্রিয়া শুরু করা হবে। এরপর সংসদে পেশ হবে সংবিধান সংশোধন বিল, যেখানে মঞ্জুর হলে তা চূড়ান্ত অনুমোদনের জন্য যাবে রাষ্ট্রপতির কাছে।

গত জুন মাসে রাজ্য সরকার পশ্চিমবঙ্গের নাম পরিবর্তন করতে চায় ঐতিহাসিক, সাংস্কৃতিক এবং রাজনৈতিক কারণে। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, ‘পশ্চিম’ শব্দটি ১৯৪৭ সালে হওয়া বঙ্গভঙ্গের স্মৃতি বহন করে, যখন বর্তমান বাংলাদেশ হয়ে যায় পূর্ববঙ্গ এবং এ রাজ্য পশ্চিমবঙ্গ।

তবে নাম বদলের এই চিন্তা নেহাত নতুন নয়। ২০১৬ সালে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর উদ্যোগে আয়োজিত আন্তঃ-রাজ্য সম্মেলনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সব মুখ্যমন্ত্রীর শেষে বক্তব্য রাখতে বাধ্য হন, কারণ রাজ্যগুলির নাম ইংরেজি হরফ অনুযায়ী সাজানো হয়েছিল, যার ফলে ‘ওয়েস্ট বেঙ্গল’ ছিল একেবারে শেষে।

তখনই রাজ্য বিধানসভায় পশ্চিমবঙ্গ নাম পাল্টে বাংলা নাম রাখার প্রস্তাব পাশ করা হয়। কিন্তু তা ইংরেজিতে হবে বেঙ্গল এবং হিন্দিতে বাঙ্গাল। সে সময় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক আপত্তি জানিয়ে বলে, একই রাজ্যের তিনটি আলাদা ভাষায় নামকরণ সমীচীন নয়। মমতা এ-ও প্রস্তাব করেন, যে নতুন নাম হিসেবে ‘পশ্চিম বঙ্গ’ বেছে নেওয়া হোক, এবং সেটাই ইংরেজিতে লেখা হোক। কিন্তু তাঁর এই প্রস্তাবও অনুমোদন করেনি কেন্দ্র।

তার পরেই এই বছরের জুন মাসে ফের নাম পরিবর্তনের প্রস্তাব রাখে রাজ্য।

You might also like