Latest News

মোদীর বারাণসীতে তেলঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রীর ছবি দিয়ে হোর্ডিং, দেশের নেতা হওয়ার দৌড়ে কেসিআর

দ্য ওয়াল ব্যুরো : তেলঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রী তথা তেলঙ্গানা রাষ্ট্র সমিতির সুপ্রিমো কে চন্দ্রশেখর রাও (K Chandrasekhar RaO) বৃহস্পতিবার ৬৮ তে পা দিলেন। এই উপলক্ষে গোটা রাজ্যে তেলুগু (Telugu) নেতার জন্মদিন পালনের আয়োজন করেছে দল। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী (Narendra Modi) টুইট করে কেসিআরকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন।

তবে লক্ষণীয় হল, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সংসদীয় কেন্দ্র বারাণসীতেই রাস্তার মোড়ে মোড়ে কেসিআরকে জন্মদিনের শুভেচ্ছা জানিয়ে হোর্ডিং দিয়েছে তাঁর দল। তাতে লেখা দেশের নেতা কেসিআর দীর্ঘজীবী হোন।

তেলঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রীর হালে মোদীর বিরুদ্ধে নতুন করে সুর চড়িয়েছেন। মোদী হটাও অভিযানে অবিজেপি মুখ্যমন্ত্রীদের জোট গড়তে উদ্যোগ নিয়েছেন। এই প্রেক্ষাপটে বারাণসীতে তাঁর ছবি সহ হোর্ডিং নিয়ে জল্পনা শুরু হয়েছে।

মজার তথ্য হল, ২০১৯ এর লোকসভা ভোটে বারাণসীতে তেলঙ্গানার জনা পঞ্চাশ হলুদ চাষি মোদীর বিরুদ্ধে প্রার্থী হন। তাঁদের অভিযোগ ছিল, কথা দিয়েও মোদী জাতীয় হলুদ বোর্ড গঠন করেননি। পরে জানা যায়, কৃষকদের প্রার্থী করার পিছনে মদত ছিল কেসিআরের।

তেলঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রী ইদানীং অবিজেপি মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে মোদী হটাও অভিযান নিয়ে আলোচনা চালাচ্ছেন। বুধবারই মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে তাঁর  কথা হয়। দু’জনেই দু’জনকে কথা দেন, নরেন্দ্র মোদীকে গদিচুত করতে একে অপরের লড়াইয়ে পাশে থাকবেন।

বুধবার ফোনটি করেন অবশ্য মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরেই। শিবসেনা সুপ্রিমো তেলঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রী তথা  তেলঙ্গানা রাষ্ট্র সমিতির প্রধানকে ফোনে বলেন, আপনার লড়াইয়ে পাশে আছি। আমাদের ঐক্যবদ্ধভাবে লড়াই করতে হবে।

দু’দিন আগে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং তামিলনাড়ুর মুখ্যমন্ত্রী এমকে স্ট্যালিনের ফোনে কথা হয়। স্ট্যালিন সম্প্রতি বিজেপি বিরোধী মঞ্চ গড়ার ডাক দিয়েছেন। রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়‌ যেভাবে টুইট করে রাজ্য বিধানসভার আগের অধিবেশনের সমাপ্তি ঘোষণা করেছেন তার নিন্দা করে টুইট করেন স্ট্যালিন। তা নিয়ে স্ট্যালিনকে ফোন করে কৃতজ্ঞতা জানান মমতা। তাঁদের আলোচনায় ঠিক হয়, অবিজেপি মুখ্যমন্ত্রীদের বৈঠক ডাকার উদ্যোগ নেবেন তাঁরা। বৈঠক চেন্নাই অথবা দিল্লিতে হতে পারে। এদিন উদ্ধব-কেসিআর বৈঠকে ঠিক হয়েছে, তেলঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রী এ মাসের শেষ নাগাদ মুম্বই যাবেন।

ক’দিন ধরেই নরেন্দ্র মোদীর দিকে একের পর এক অভিযোগের তীর ছুঁড়ছেন কেসিআর। তাঁর প্রধান অভিযোগ, নরেন্দ্র মোদীর সরকার যুক্ত রাষ্ট্রীয় ব্যবস্থাকে ধ্বংস করে দিচ্ছে। রাজ্যগুলির অস্তিত্ব মানছে না।

তেলঙ্গানার মুখ্যমন্ত্রী মোদীর উপর এতটাই বিরক্ত যে গত সপ্তাহে প্রধামন্ত্রীর হায়দরাবাদ সফর বয়কট করেন স্বয়ং মুখ্যমন্ত্রী। কেন্দ্রবিরোধী সুর চড়াতে গত পরশু পুলওয়ামা দিবসে সার্জিক্যাল স্ট্রাইকের বিশ্বাসযোগ্যতা নিয়েও সংশয় প্রকাশ করেন। রাহুল গান্ধীর মতো তিনিও প্রমাণ দাবি করেন।

You might also like