Latest News

হরিদেবপুরের নিখোঁজ যুবকের দেহ মিলল মগরাহাটে! বান্ধবীকে জিজ্ঞাসাবাদ পুলিশের

দ্য ওয়াল ব্যুরো: দশমী থেকে নিখোঁজ যুবকের দেহ উদ্ধার ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়াল। দিন দু’য়েক আগে বান্ধবীর সঙ্গে দেখা করতে বেরিয়েছিলেন হরিদেবপুরের (Haridevpur Murder) বাসিন্দা অয়ন মণ্ডল। পরিবারের কথায়, বাড়ি ফেরেননি আর অয়ন। শুক্রবার দক্ষিণ ২৪ পরগনার মগরাহাট থেকে উদ্ধার হয় অয়নের দেহ। অয়নের বান্ধবী ও তাঁর পরিবারের বিরুদ্ধে থানায় খুনের অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে বলে খবর।

জানা গেছে, এদিন দক্ষিণ ২৪ পরগনা মগরাহাট থানার অন্তর্গত মাগুরপুকুর পুলিশ ক্যাম্পের পাশ থেকে উদ্ধার হয় অয়নের (২১) দেহ। পুলিশের প্রাথমিক অনুমান, খুন করা হয়েছে তাঁকে। কিন্তু এই ঘটনার পেছনে কে বা কারা জড়িত তা এখনও নিশ্চিতভাবে বলতে পারছেন না কেউই। অয়নের পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে অয়নের বান্ধবী ও তাঁর বাবাকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করছে হরিদেবপুর থানার পুলিশ।

অয়নের বন্ধুদের সূত্রে খবর, দশমীর দিন তাঁর বান্ধবী একা ছিলেন। তাই তাঁর সঙ্গে দেখা করতেই যান অয়ন। কিন্তু হঠাৎই ওই মেয়েটির মা-বাবা এসে পড়ায় ছাদে চলে যান তিনি। সেখান থেকেই রাত ৩টে নাগাদ বন্ধুদের ফোনও করেন। বন্ধুদের দাবি, সেই ফোনে অয়ন তাঁদের জানান যে, ওই মেয়েটির মা নাকি তাঁকে মারধর করেন।

তারপর থেকে অয়নকে আর ফোনে পাওয়া যায়নি। ৪৮ ঘণ্টা কেটে যাওয়ার পরও বাড়ি ফেরেননি অয়ন। এদিন পুলিশ তাঁর দেহ উদ্ধার করে। শেষবার অয়নের ফোনের লোকেশন পাওয়া গিয়েছিল হরিদেবপুরের নেপালগঞ্জ এলাকায়। কিন্তু ছেলেকে যে মৃত অবস্থায় এতদূরে পাওয়া যাবে তা স্বপ্নেও ভাবতে পারেনি অয়নের পরিবার। পুলিশ গোটা ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। কীভাবে অতদূরে অয়নের দেহ মিলল তাও তদন্তকারী অফিসারদের ভাবাচ্ছে। এদিকে পুলিশের নিস্ক্রিয়তার অভিযোগ তুলে থানার সামনে বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন পরিবারের লোকেরা।

দশমীতে বেরিয়ে নিখোঁজ যুবক, দ্বাদশীতে ঘরে ফিরল নিথর দেহ, তদন্তে পুলিশ

You might also like