Latest News

মহিলাদের পৃথক বুথ তুলে দেওয়ায় ভোট বয়কট গুজরাতের গ্রামে

দ্য ওয়াল ব্যুরো: দেশের প্রথম সাধারণ নির্বাচনের সময় থেকেই মহিলা ভোটারদের জন্য পৃথক বুথ (Different Booth for Women) থাকত গ্রামটিতে (Gujarat Village)। কিন্তু নির্বাচন কমিশন গুজরাত বিধানসভার চলতি নির্বাচনে মহিলাদের আলাদা বুথ তুলে দিয়েছে। গ্রামের দুটি বুথই সব ভোটারের জন্য উন্মুক্ত করে দেওয়া হয়।

কমিশনের এই সিদ্ধান্ত মানতে চায়নি গুজরাতের জামনগর জেলার জামযোধপুর ব্লকের ধ্রাফা গ্রামের বাসিন্দারা। প্রতিবাদে গ্রামের ২১০০ ভোটার ভোট দেননি গতকাল (Boycott Election)।

গ্রামবাসীদের দাবি, কমিশনের সিদ্ধান্ত গ্রামের দীর্ঘদিনের ঐতিহ্যে আঘাত করেছে। কী সেই ঐতিহ্য? গ্রামবাসীরা জানিয়েছে, ওই গ্রামে মহিলারা বাড়ির বাইরে মুখ ঢেকে চলাফেরা করেন। পথেঘাটে কোনও পুরুষের সঙ্গে কথা বলেন না। এটাকে বলা হয় ওজল প্রথা।

এই প্রথার কারণে, প্রথম সাধারণ নির্বাচন থেকেই গ্রামে মহিলাদের জন্য পৃথক বুথ থাকত। এবার শেষ মুহূর্তে জানা যায়, আলাদা বুথ তুলে দেওয়া হয়েছে। প্রতিবাদে গ্রামের ১২০০ পুরুষ ও ৯০০ মহিলা ভোটারের কেউ বুথমুখো হননি। নির্বাচন কমিশনের অফিসারেরা গতকাল গ্রামবাসীদের ভোট বয়কটের ডাক তুলে নেওয়ার আর্জি জানান। কিন্তু দল নির্বিশেষে গ্রামবাসীরা ঐতিহ্য রক্ষার দাবিতে অনড় থাকে।

ধ্রাফার পঞ্চায়েত প্রধান ধর্মেন্দ্রসিংহ জাদেজা বলেন, আমরা স্থানীয় শিক্ষকের মাধ্যমে দিন কয়েক আগে জানতে পারি যে কমিশন কন্যাশালা বালিকা বিদ্যালয়ে শুধুমাত্র মহিলাদের জন্য যে বুথটি হত, সেটা এবার তুলে দিয়েছে। অন্য একটি স্কুলে সাধারণ ভোটারদের জন্য দুটি বুথ করা হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, ‘আমরা মহকুমা শাসককে বলেছিলাম, গ্রামের মহিলারা পুরুষদের পাশাপাশি সারিতে দাঁড়াবে না। তাদের জন্য আলাদ বুথ করা হোক। কিন্তু কমিশন অনুরোধ উপেক্ষা করে।’

পালিয়ে বিয়ে করবে যুগল, বান্ধবীকে খুন করে পুড়িয়ে দিল মুখ! নয়ডায় এ কী নৃশংস কাণ্ড

You might also like