Latest News

‘হাঁফিয়ে উঠেছি’ বলে গুজরাতে বিজেপি ছাড়লেন প্রাক্তন স্বাস্থ্যমন্ত্রী, যেতে পারেন কংগ্রেসে, আপেও

দ্য ওয়াল ব্যুরো: পরিস্থিতিটা অনেকটা গত বছর বাংলার বিধানসভা নির্বাচনের আগের মুহূর্ত। বিজেপি ও তৃণমূল কংগ্রেসে অনেকেই হাঁফিয়ে উঠে দলবদল করছিলেন। গুজরাতে (Gujarat BJP) গতকাল আপ ছেড়ে ফের পুরনো দল কংগ্রেসে ফিরে গিয়েছেন এক নেতা। আপ তাঁকে মুখ্যমন্ত্রী প্রার্থী না করাতেই দল ছেড়ে কংগ্রেসে ফিরে যান ইন্দ্রনীল রাজগুরু নামে ওই নেতা। শনিবার দুপুরে বিজেপি ছাড়ার কথা ঘোষণা করেছেন রাজ্যের প্রাক্তন স্বাস্থ্যমন্ত্রী প্রবীন নেতা জয়নারায়ণ ব্যাস (Jaynarayan Vyas)।

তাঁর কথায়, ‘আমি বিরক্ত। হাঁফিয়ে উঠেছিলাম। তাই দল ছাড়লাম।’ প্রসঙ্গত, জয়নারায়ণ গুজরাত বিজেপিতে পরিচিত মুখ এবং নরেন্দ্র মোদী মুখ্যমন্ত্রী থাকাকালে তাঁর মন্ত্রিসভার স্বাস্থ্যমন্ত্রী ছিলেন।

বিজেপির এই প্রাক্তন মন্ত্রী ও নেতা চারবারের বিধায়ক। তবে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন সাতবার। তাঁর নির্বাচনী কেন্দ্র সিদ্ধপুর থেকে এবারও লড়াই করতে চান। খোলাখুলি বলেছেন, ‘কংগ্রেস ও আপ, দু’দলের জন্যই আমার দুয়ার খোলা।’

তবে কংগ্রেসে গেলেও সিদ্ধপুর আসনে প্রার্থী হওয়ার সুযোগ কম। কারণ, ২০১৭-তে সেখানে কংগ্রেসের কাছেই হারেন তিনি। কংগ্রেস বর্তমান বিধায়ককে বাদ দিয়ে দলবদলুকে টিকিট দেবে কি না সংশয় আছে। ফলে আপে যোগ দেওয়ার সম্ভাবনাই বেশি। যদিও কংগ্রেসের এক নেতা জানিয়েছেন, সিদ্ধপুর থেকে টিকিট দেওয়ার বিষয়ে ব্যাসের সঙ্গে দলের সিনিয়র নেতাদের কথা হয়েছে। একই দাবি করেছে আপও। অন্যদিকে, ব্যাসের দাবি, তিনি এখনও সিদ্ধপুর আসনের সবচেয়ে জনপ্রিয় প্রার্থী।

ব্যাস দীর্ঘ সময় সর্দার সরোবর বাঁধ প্রকল্প বাস্তবায়নের কাজে যুক্ত কর্পোরেশনের চেয়ারম্যান ছিলেন। সেই সুবাদেও গোটা গুজরাতে তিনি পরিচিত মুখ। কিন্তু বিজেপির বর্তমান রাজ্য নেতৃত্বের সঙ্গে তাঁর বনিবনা হচ্ছিল না।

হিমাচলে আজ প্রচারে মোদী, পাহাড়ি রাজ্যে যেতে কেন অমৃতসর ছুঁয়ে গেলেন প্রধানমন্ত্রী

You might also like