Latest News

Gosaba: স্ত্রীর সঙ্গে অশান্তি, নিজের একরত্তি শিশুকে পুকুরে ডুবিয়ে ‘খুন’ করল বাবা!

দ্য ওয়াল ব্যুরো: নিজের একরত্তি শিশুকে পুকুরে ডুবিয়ে খুন করল বাবা! এমনই মর্মান্তিক ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে গোসাবা (Gosaba) এলাকায়। অভিযোগ, স্ত্রীর সঙ্গে অশান্তির জেরে এলাকারই এক পুকুরে নিজের ছয় বছরের সন্তানকে ডুবিয়ে রাখে তার বাবা। শ্বাস নিতে না পেরে ডুবন্ত অবস্থাতেই মৃত্যু (death) হয় ওই ছোট্ট ছেলেটির!

ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগনার গোসাবা (Gosaba) ব্লকের পাঠানখালি গ্রাম পঞ্চায়েতের তালতলা গ্রামে। স্থানীয় সূত্রে খবর, ওই গ্রামের বাসিন্দা আসানআলি সর্দার। কিন্তু স্বামী স্ত্রীর মধ্যে প্রায়ই অশান্তি লেগে থাকত। স্ত্রী নাজমিরার সঙ্গে আসানআলির দশ বছরের বৈবাহিক সম্পর্ক। তবে সম্প্রতিকালে সেই সম্পর্কে ভাঁটা পড়ে।

আসানআলির অভিযোগ ছিল, তার স্ত্রী অন্য এক পুরুষের সঙ্গে সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে। স্ত্রীকে বারবার বোঝানো সত্ত্বেও কোনও লাভ হয়নি। নাজমিরার মা বেশ কয়েকদিন আগে নিজের স্বামীকে ছেড়ে কলকাতা চলে গেছেন। তার পর মেয়েকেও সেখানে ডেকে পাঠান। নাজমিরাও চলে যান আসানআলিকে ছেড়ে। যদিও তাঁদের দুই সন্তান থাকে আসানআলির কাছেই।

তবে বেশ কয়েকদিন ধরেই ছোট ছেলে নাজিমকে নিজের কাছে নিয়ে যাওয়ার জন্য উঠে পড়ে লাগেন নাজমিরা। কিন্তু নিজের ছেলেকে ছাড়তে নারাজ আসানআলি। অশান্তি চলতে থাকে। অভিযোগ, বৃহস্পতিবার সকলের অলক্ষ্যে পুকুরের জলে ডুবিয়ে নাজিমকে মেরে ফেলে আসানআলি। কেউ যাতে বুঝতে না পারে তাই গাছের ডাল পালা দিয়ে পুকুরের মধ্যেই ঢেকে রাখেন ছেলের দেহ।

কিন্তু দীর্ঘক্ষণ নাজিমের খোঁজ না পাওয়ায় চিন্তায় পড়েন প্রতিবেশীরা। সন্দেহ হয়। আসানকে ফোন করেও সদুত্তর মেলেনি কোনও। অবশেষে গোসাবা থানায় খবর দেন প্রতিবেশীরা। পুলিশ এসে ওই শিশুকে উদ্ধার করে গোসাবা ব্লক গ্রামীণ হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা মৃত বলে ঘোষণা করেন।

ঘটনার পর থেকেই বন্ধ আসানের ফোন। খোঁজ চালাচ্ছে পুলিশ। আসানের পরিবারও তার শাস্তির দাবি জানাচ্ছেন। গোটা ঘটনায় শোকের ছায়া নেমে এসেছে এলাকায়।

‘সন্ধ্যাক’-এর পর ‘নির্দেশক’! ভারতের দ্বিতীয় বৃহৎ সার্ভে জাহাজের পথ চলা শুরু

You might also like