Latest News

চারপাশে সবুজ কতটা ঘন, গাছ লাগানোর জায়গা কোথায়, এবার জানিয়ে দেবে গুগল নিজেই

দ্য ওয়াল ব্যুরো: এ পৃথিবীর, এ সভ্যতার বেঁচে থাকার জন্য সবুজ কতটা প্রয়োজন, সেকথা নতুন করে বলার কিছু নেই। কিন্তু সবুজ বাঁচানোর চেষ্টা করেও বারংবার যাঁরা পারেননি, তাঁদের হাত শক্ত করতেই গুগল দেখাল নয়া দিগন্ত– ‘ট্রি ক্যানোপি ল্যাব’।

শহরের চারপাশে ফাঁকা জায়গা কোনগুলো, এবার জেনে যাবেন এর মাধ্যমে। ফলে সহজেই নতুন করে সবুজে ভরিয়ে তুলতে পারবেন চারপাশ। গুগলের এই নয়া মেশিন এসে পড়ায় আনন্দে আত্মহারা পরিবেশপ্রেমীরা।

‘ট্রি ক্যানোপি ল্যাব’ আসলে আর্টিফিশিয়াল ইন্টেলিজেন্সের মাধ্যমে একটি মেশিনের মতো কাজ করবে। যা বিভিন্ন জায়গার এরিয়াল ইমেজ তুলে ধরবে। অর্থাৎ উপর থেকে ছবি তুলে দেখাবে বিভিন্ন এলাকার ফাঁকা জায়গা। ফলে সহজে জেনে যেতে পারবেন, কোথায় কোথায় গাছ লাগানো প্রয়োজন। এনভায়রনমেন্টাল ইনসাইটস এক্সপ্লোরার প্ল্যাটফর্ম-এর অংশ এই ‘ট্রি ক্যানোপি ল্যাব’। যা পরিবেশে দূষণের মাত্রাও জানিয়ে দেয়। ফলে সহজে পরিকল্পনা করে কাজ শুরু করতে পারবেন।

মেশিনে ‘স্টেট অফ দ্য আর্ট ট্রি’- এর ব্যবস্থা করা আছে‌। যার সাহায্যে সবুজের ঘনত্ব জানতে পারবেন। ফলে কোন জায়গার কেমন তাপমাত্রা, কোথায় মানুষের বসবাস বেশি, কোথায় গাছ লাগানো প্রয়োজন এইসব জানতে পারবেন। গুগল এআই ও গুগল আর্থ ইঞ্জিন এগুলো শনাক্ত করতে সাহায্য করবে। বছরে গ্রীষ্ম, বসন্ত, হেমন্তে প্রকৃতি ও চারপাশ কেমন দেখায় সেটাও এরিয়াল ইমেজে ধরা পড়বে।

মেশিনটি ইতিমধ্যেই কাজ করতে শুরু করেছে। লস এঞ্জেলেসের ফাঁকা জায়গা শনাক্তও করেছে এর মধ্যে। এরপর ধীরে ধীরে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে কাজ শুরু হবে বলে জানা গেছে। মেশিনের মাধ্যমে জানা গেছে লস এঞ্জেলেসের বিভিন্ন জায়গার জনঘনত্ব, কোথায় গাছ লাগানো প্রয়োজন, কোথায় তাপমাত্রা বেশি। একইসঙ্গে দেখা গেছে ৫০ শতাংশ এঞ্জেলিনস এমন জায়গায় থাকে, যেখানে ১০ শতাংশের কম ট্রি ক্যানোপি কভারেজ। আর ৪৪ শতাংশ এঞ্জেলিনস এমন জায়গায় বসবাস করেন, যেখানে উষ্ণতা বেড়ে যাওয়ার ঝুঁকি রয়েছে।

You might also like