Latest News

আমাদের লড়াই কাশ্মীরিদের বিরুদ্ধে নয়, এই প্রথমবার বললেন মোদী

দ্য ওয়াল ব্যুরো : পুলওয়ামা কাণ্ডের পরে কেটে গিয়েছে একটি সপ্তাহ। দেশের নানা প্রান্তে উত্তেজিত জনতার হাতে আক্রান্ত হয়েছেন কাশ্মীরিরা। শনিবার রাজস্থানের টঙ্কে এক জনসভায় এই ধরনের আক্রমণের বিরুদ্ধে মানুষকে সতর্ক করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। খুব স্পষ্টভাবে তিনি বললেন, আমরা লড়াই করছি কাশ্মীরের জন্য। কাশ্মীরিদের বিরুদ্ধে আমাদের লড়াই নয়। সন্ত্রাসবাদের জন্য সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন কাশ্মীরিরাই। বাকি দেশের উচিত কাশ্মীরের পাশে দাঁড়ানো।

এর আগে কাশ্মীরিদের বিরুদ্ধে আক্রমণ বন্ধের নির্দেশ দিয়েছে দেশের সর্বোচ্চ আদালত। গত শুক্রবার সুপ্রিম কোর্ট ১০ টি রাজ্যকে নির্দেশ দিয়েছে, ওই ধরনের ঘটনা বন্ধ করার জন্য দ্রুত ব্যবস্থা নিতে হবে। পশ্চিমবঙ্গ থেকে জম্মু পর্যন্ত দেশের কয়েকটি অঞ্চলে কাশ্মীরি ছাত্র ও ব্যবসায়ীরা উত্তেজিত জনতার হাতে আক্রান্ত হয়েছে। হামলার ভয়ে নানা রাজ্য থেকে শত শত কাশ্মীরি পালিয়ে গিয়েছেন নিজেদের রাজ্যে।

নানা মহল থেকে প্রশ্ন উঠেছিল, কোনও প্রথম সারির বিজেপি নেতা কাশ্মীরিদের প্রতি এই আক্রমণের নিন্দা করছেন না কেন? এদিন বিজেপির পক্ষ থেকে প্রথমবার মোদী ওই হিংসার বিরুদ্ধে মুখ খুললেন। যদিও এর আগে বিজেপির দুই জোটসঙ্গী শিরোমণি অকালি দল ও শিবসেনা কাশ্মীরিদের ওপরে হামলার নিন্দা করেছে।

কিছুদিন আগে মিজোরামের রাজ্যপাল তথাগত রায় টুইট করেছিলেন, কাশ্মীরিদের সামাজিক বয়কট করুন। কেন্দ্রীয় মন্ত্রী রবিশংকর প্রসাদকে এসম্পর্কে প্রশ্ন করলে তিনি বলেন, আমি ওই টুইটের সঙ্গে একমত নই। এই নিয়ে আর কোনও প্রশ্নের জবাব দেব না।

এদিন মোদী দাবি করেন, তাঁর সরকার দ্রুত পুলওয়ামার জঙ্গি হানার বদলা নিয়েছে। তাঁর কথায়, আমি গর্বের সঙ্গে বলছি, নিরাপত্তা রক্ষী বাহিনী ওই হামলার ১০০ ঘণ্টার মধ্যে অপরাধীদের ঠিক সেইখানে ফিরিয়ে দিয়েছে, যেখানে তাদের থাকা উচিত।

উপস্থিত জনতার উদ্দেশে মোদী আবেদন জানান, আমার ওপরে আস্থা রাখুন। সৈনিকদের ওপরে আস্থা রাখুন। এবার সব অপরাধীরই বিচার হবে। আপনাদের প্রধান সেবক সন্ত্রাসবাদকে ধ্বংস করার কাজে ব্যস্ত।

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের কথা তুলে মোদী বলেন, তিনি প্রধানমন্ত্রী হওয়ার পরে আমি তাঁকে ফোনে অভিনন্দন জানিয়েছিলাম। তখন বলেছিলাম, আমরা তো অনেক দিন ধরে নিজেদের মধ্যে লড়াই করেছি। আসুন এবার দারিদ্র ও অশিক্ষার বিরুদ্ধে লড়াই করি। ইমরান বললেন, আমি পাঠানের সন্তান। যা বলি তা করে দেখাই। মোদী বলেন, এখন দেখি, তিনি কথা রাখেন কিনা।

 

You might also like